জুমআর করণীয় আমল গুলো জেনে নিনঃ হাদিসের আলোকে

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, দুনিয়াতে মানুষের খুশির দিন তিনটি। দুই ঈদের দিন এবং জুমআর দিন। এই দিন গরিবের হজ্বে দিন ৷ সপ্তাহের শ্রেষ্ঠ দিন।

এ দিনে মুমিন মুসলমানের রয়েছে কিছু করণীয় সুন্নাত কাজ। যা এখানে তুলে ধরা হলো-
১-জুমআর দিন নখ কাটা এবং গোঁফ ছাঁটা। (মিশকাত) · {হাতের নখ কাটার সুন্নাত নিয়ম- ডান হাত : প্রথমে ডান হাতের শাহাদাত বা তজ্জনী আঙ্গুল, তারপর মধ্যমা, তারপর অনামিক এবং তারপর কনিষ্ঠ আঙ্গুলের নখ কাঁটা। বাম হাত : বাম হাতের কনিষ্ঠ, তারপর অনামিকা, তারপর মধ্যমা, তারপর শাহাদাত, তারপর বৃদ্ধাঙ্গুলি এবং সর্বশেষ ডান হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলির নখ কাটা। পায়ের নখ কাটার নিয়ম- ডান পায়ের কনিষ্ঠ আঙ্গুল থেকে শুরু করে বৃদ্ধাঙ্গুলিতে শেষ করা। বাম পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলি থেকে শুরু করে কনিষ্ঠাঙ্গুলিতে এসে শেষ করা। (শামায়েলে তিরমিজি)} ·

২- জুমআর দিন জামা-কাপড় ধোয়া এবং শরীর পাক-পরিষ্কার করে গোসল করা। (আবু দাউদ, ইবনু মাজাহ) ·

৩- জুমআর দিন জুমআর নামাজের উদ্দেশ্যে মিসওয়াক করা এবং গোসল করা। (বুখারি) ·

৪- জুমআর দিন নামাজের উদ্দেশ্যে সুগন্ধি ব্যবহার করা। (বুখারি) ·

৫- জুমআর দিন নামাজের জন্য উত্তম পোশাক পরিধান করা। (আবু দাউদ) ·

৬- জুমআর দিন আগে-ভাগে প্রস্তুতি গ্রহণ করে পায়ে হেঁটে মসজিদে যাওয়া। (আবু দাউদ) ·

৭- শরীরে অযাচিত (বগল ও নাভির নিচে) লোম পরিষ্কার করা। ·

৮- সুরা কাহাফের তিলাওয়াত জুমআর দিনের বিশেষ আমল · এক রেওয়ায়েতে আছে, আমলটি দ্বারা এক জুমআ থেকে অপর জুমআ পর্যন্ত তার সব ছোট গোনাহ মাফ হয়ে যাবে। ·

সুতরাং আল্লাহ তাআলা উম্মাতে মুসলিমাকে উপরোক্ত কাজগুলো নিয়মিতভাবে আদায় করে সুন্নাতের উপর পরিপূর্ণ আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।।

লেখকঃ – শহীদুল্লাহ নজীব আল-হাবিবী

ফেসবুকে লাইক দিন