জিয়াউর রহমানের মরণোত্তর বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

ইমান২৪.কম: বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান এবং খন্দকার মোস্তাক দেশের সংবিধান, নিয়ম নীতি ও আইন না মেনে সেনা ছাউনি ব্যবহার করে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট রাতে নির্লজ্জভাবে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করেছে।

এ জন্য তাদের মরণোত্তর বিচারের দাবি জানিয়েছে জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ। শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের আয়োজনে অনুষ্ঠিত এক মানববন্ধনে বক্তারা এসব দাবি জানান।

বক্তারা বলেন, বিএনপির উৎপত্তি হয়েছে চক্রান্তের মাধ্যমে। সেই চক্রান্তের শিকার হয়েছে আমাদের জাতিরজনক। আজ আমরা যদি এই খুনিদের বিচার না করি দেশ ও জাতির পাপমোচন হবে না। এ জন্য আমরা তার খুনিদের বিচার চাই।

মানববন্ধনে অ্যাডভোকেট কাজী এম সাজাওয়ার হোসেন বলেন, একাত্তরের পাকিস্তানিদের পরাস্ত করার পর বলিষ্ঠ হাতে বঙ্গবন্ধু যখন দেশ গড়ছিলেন, তখন জিয়াউর রহমানের এসব সহ্য হয়নি। বঙ্গবন্ধুর মতো নেতা হয়ত আমরা আর পাব না, কিন্তু তার খুনিদের মরণোত্তর বিচার করে জাতিকে কলঙ্কমুক্ত করতে পারি। তাই আমরা জিয়াসহ তার সকল সহযোগীদের মরণোত্তর বিচার দাবি করছি।

জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিলের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট এফ আর খান, অ্যাডভোকেট হারুন অর রশিদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অরুণ কুমার গোস্বামী, ন্যাপ ভাসানী পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ ভাসানী, কৃষক-শ্রমিক পার্টির চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সাধারণ সম্পাদক সমীর রঞ্জন দাসসহ প্রমুখ।

আরও পড়ুন: পাগলে কিনা বলে, ছাগলে কিনা খায় : রিজভীকে ওবায়দুল কাদের

স্কুলে ধর্ম শিক্ষক হিসেবে কওমি শিক্ষার্থীদের নিয়োগের দাবি সংসদে (ভিডিও)

০১৫৩৭-৭০৭০৭০ নম্বরে সার্বক্ষণিক পাওয়া যাবে ধর্ম প্রতিমন্ত্রীকে

দুর্নীতিবাজ রাঘব বোয়ালদের ছেড়ে শিক্ষকদের নিয়ে ব্যস্ত দুদক: হাইকোর্ট

যখনই আমি ভুল করবো আপনি শুধরে দিবেন: মাওলানা তারিক জামিলকে ইমরান খান

এখন থেকেপুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করা যাবে সরাসরি, খোলা হয়েছে কমপ্লেইন সেল

ফেসবুকে লাইক দিন