জার্মানে ‘ইসলাম ও মুসলমানদের’ মুছে ফেলার হুমকি দিয়ে মসজিদে চিঠি

ইমান২৪.কম: শুক্রবার জার্মানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর হুফিংগেনের একটি মসজিদে মুসলিম বিরোধী লেখা সম্বলিত একটি ঘৃণ্য চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

তুর্কি-ইসলামিক ইউনিয়নের ধর্ম বিষয়ক সংস্থা (ডিআইটিআইবি) তথ্য অনুসারে বাডেন-রুর্টেমবার্গ রাজ্যের আকসা মসজিদে প্রেরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, “ইসলাম জার্মানি বা ইউরোপের নয়” এবং “আমরা জার্মানি থেকে মুসলমান ও ইসলাম ধর্মকে মুছে ফেলব”।

হুফিংগেনের ডিআইটিআইবির প্রধান হাকিন তাদেমি বলেছেন, এই চিঠির ফলে তারা দুঃখ পেয়েছেন এবং গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

তিনি আরও যোগ করে বলেন যে ১৯৯৬ সাল থেকে মসজিদটি চালু ছিল এবং এটিই এ মসজিদে এমন কোনো প্রথম ঘটনা বলে জানিয়েছেন।

হাকিন জানান, তারা যথাযথ কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবহিত করেছে এবং তারা তদন্ত শুরু করেছেন বলে জানিয়েছেন। কোলোন ভিত্তিক ডিআইটিআইবি জার্মানির অন্যতম বৃহত্তম ইসলামিক সংগঠন।

এটি ১৯৮৪ সালে তুরস্কের শীর্ষ ধর্মীয় সংস্থা প্রেসিডেন্সি অফ রিলিজিয়াল অ্যাফেয়ার্স (ডায়ানেট) এর একটি শাখা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

ডিআইটিআইবি বর্তমানে জার্মানিতে প্রায় ১১০০ ইমাম নিয়ে প্রায় ৮৫০ টি মসজিদ পরিচালনা করছে।

এই ইমামদের বেশিরভাগই তুরস্ক থেকে নিযুক্ত হন এবং অবশেষে জার্মানিতে চার বছর চাকরি করার পরে তুরস্কে ফিরে আসেন।

বর্তমানে জার্মানিতে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত প্রায় ১১০ জন ইমাম রয়েছেন, এবং তাদের লক্ষ্য এই সংখ্যাটি আরও বাড়ানো।

ফেসবুকে লাইক দিন