জাতিসংঘ থেকে ফিরে যা বললেন ফখরুল..

ইমান২৪.কম: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জাতিসংঘের কাছে দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি বলেছি। তারা এ ব্যাপারে কিছু জানতে চেয়েছে সেগুলো আমরা জানিয়েছি।

সোমবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে স্থায়ী কমিটির সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিএনপির মহাসচিব এ কথা জানান।

বর্তমানে গণতন্ত্র যে হুমকির মুখে সে বিষয়ে জাতিসংঘের মনোভাব কেমন প্রশ্ন করা হলে মির্জা ফখরুল বলেন, আলোচনা করেছি, সবকিছু বলেছি। ওনারা বিষয়গুলো দেখবেন বলেছেন।

জাতিসংঘ মহাসচিবের আমন্ত্রণে তার সফর হয়েছে দাবি করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, এটা পরিষ্কার যে, জাতিসংঘের মহাসচিবের আমন্ত্রণে আমি জাতিসংঘে গিয়েছিলাম। যেহেতু কফি আনান সাহেবের শেষকৃত্য অনুষ্ঠান ছিলো উনি (জাতিসংঘের মহাসচিব) চলে গিয়েছিলেন। আমরা জাতিসংঘের যিনি দায়িত্বপ্রাপ্ত ছিলেন অ্যাসিটেন্ট সেক্রেটারি জেনারেল তার সঙ্গে কথা বলেছি।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমি দৃঢ়তার সঙ্গে বলতে চাই, জাতিসংঘের যে চার্টার আছে সেই চার্টারের মধ্যে পরিষ্কার বলা আছে, সদস্য দেশের সরকার, বিরোধী দল, রাজনৈতিক দল, ব্যক্তি ও সংগঠনের যে কেউ তাদের যেকোনো বিষয় উত্থাপন করতে পারে।

লন্ডনে তারেক রহমানে সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছে কিনা প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, হ্যাঁ আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সঙ্গে আমার লন্ডনে দেখা হয়েছে। আলোচনা হয়েছে দেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে।

জাতিসংঘ থেকে দেশে ফেরার পর প্রথম সাংবাদিকদের সাথে কথা বললেন ফখরুল। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময়ে প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে, রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করেন মহাসচিব। বৈঠকের পর বিএনপি মহাসচিব সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল গত বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের জাতিসংঘ সদর দফতরে এবং ওয়াশিংটনে স্টেট ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তাদের সঙ্গে অনুষ্ঠিত বৈঠকের বিষয়টি স্থায়ী কমিটির সদস্যদের অবহিত করেন।

গত বুধবার মির্জা ফখরুল নিউইয়র্ক এবং বৃহস্পতিবার ওয়াশিংটন সফর শেষ করে লন্ডনে গিয়ে তারেক রহমানের সঙ্গে দেখা করে রোববার দেশে ফেরেন।

আরও পড়ুনঃ যৌতুকের মিথ্যা মামলা করলে পাঁচ বছরের জেল ও জরিমানা

নিরপেক্ষ সরকার গঠন করলে নির্বাচনে আ. লীগ প্রার্থীই পাবে না : আব্দুর রব

ফেসবুকে লাইক দিন