ছয় মাসে পাগলা মসজিদের দানবাক্সে পৌনে ২ কোটি টাকা

ইমান২৪.কম: কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের দানবাক্স থেকে এবার রেকর্ড পরিমাণ অর্থাৎ ১ কোটি ৭৪ লাখ ৮৩ হাজার ৭১ টাকা টাকা পাওয়া গেছে।

টাকা ছাড়াও দান হিসেবে অনেক স্বর্ণালঙ্কার পাওয়া গেছে দানবাক্সে। শনিবার (২২ আগস্ট) বিকেলে গণনা শেষে এ টাকার হিসাব পাওয়া যায়।

এবার ছয় মাস সাতদিন পর মসজিদের দানবাক্সগুলো খোলা হলো। ফলে দানবাক্সে পাওয়া গেল ১২ বস্তা টাকা। এর আগে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি দানবাক্সগুলো খোলা হয়েছিল।

তখন এক কোটি ৫০ লাখ ১৮ হাজার ৪৯৮ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার-বৈদেশিক মুদ্রা পাওয়া যায়। সাধারণত তিন মাস পরপর দানবাক্স খোলা হয়।

তবে এবার করোনা মহামারির কারণে দেরিতে এগুলো খোলা হয়।

মসজিদ পরিচালনা কমিটি সূত্রে জানা গেছে, শনিবার সকাল ১০টার দিকে কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরীর নেতৃত্বে জেলা প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে ঐতিহাসিক পাগলা মসজিদের আটটি দানবাক্স খোলা হয়।

পরে দানবাক্সের টাকা বস্তায় ভরা হয়। ছোটবড় ১২টি টাকাভর্তি বস্তা নেয়া হয় মসজিদের দোতলায়।

মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহমুদ পারভেজ বলেন, পাগলা মসজিদের দানবাক্স থেকে আজ এক কোটি ৭৪ লাখ ৮৩ হাজার ৭১ টাকা পাওয়া গেছে।

ফেসবুকে লাইক দিন