চার দিনে দুই ভাগে ইজতেমা, মাও. সা’দপন্থীরা পাবে দুই দিন

ইমান২৪.কম: বিশ্ব ইজতেমার সময় বাড়িয়ে চারদিন করা হয়েছে। তবে বিবাদমান দুটি পক্ষ আলাদাভাবে নিয়ন্ত্রণ করবে ইসলাম ধর্মের দ্বিতীয় বৃহত্তম এই জমায়েত। মঙ্গলবার বিকেলে সচিবালয়ে এক বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ।

আসন্ন বিশ্ব ইজতেমা আয়োজনের চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিয়ে আলোচনা করতে তাবলিগের বিবাদমান দুটি পক্ষের সিনিয়র নেতাদের নিয়ে বিকেলে বৈঠকে বসেন ধর্মমন্ত্রী শেখ মো. আবদুল্লাহ। এতে মাওলানা সা’দপন্থীদের পক্ষে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম। অপরদিকে মাওলানা সা’দবিরোধীদের পক্ষে মাওলানা জুবায়ের নেতৃত্ব দেন।

বৈঠক শেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো: আব্দুল্লাহ বলেন, বিশ্ব ইজতেমার সময়সীমা শেষ পর্যন্ত তিনদিনের বদলে চারদিন করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, তাবলিগের বিবাদমান দু’পক্ষের সাথে বৈঠকে এ বিষয়ে আরও কিছু সিদ্ধান্ত হয়েছে। সে অনুযায়ী ১৫ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি- এ চারদিন বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে প্রথম দুদিন ইজতেমা নিয়ন্ত্রণ ও ব্যবস্থাপনায় থাকবে মাওলানা জুবায়ের আহমদ।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রথম দু’দিন তারা তাদের মতো করে আয়োজন করে সবকিছু শেষ করে মোনাজাত করে চলে যাবেন।

তিনি আরো বলেন, শেষ দু’দিনের দায়িত্বে থাকবেন সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম। তারা তাদের মতো করে ওই দু’দিনের সবকিছু করবেন।

তাহলে সবকিছু আলাদাভাবেই হচ্ছে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, তাবলিগের ইজতেমা একসাথে হবে। সুন্দর ব্যবস্থাপনার জন্য দু’ভাগে ভাগ করা হয়েছে। প্রথম দু’দিন মাওলানা জুবায়ের সব ব্যবস্থাপনা করবেন। আর শেষ দুই দিনে সৈয়দ ওয়াসিফ দায়িত্ব পালন করবেন। তারা দুজন মিলেই দায়িত্ব ভাগ করে নিয়েছেন যাতে কোনো মারামারি না হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ইজতেমা এবার হচ্ছে না বলে বলা হচ্ছিলো। কিন্তু সেটি হবে এবং সুন্দরভাবে যাতে পরিচালনা হয়, যাতে কোনো বিতর্ক না হয় সেজন্য ব্যবস্থা নিচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, সবার সুবিধার জন্য ইজতেমা একদিন বাড়ানো হয়েছে। মাওলানা জুবায়ের ও সৈয়দ ওয়াসিফের ব্যবস্থাপনায় চারদিনের ইজতেমা একত্রিত অবস্থায় আমরা সম্পন্ন করবো।

এদিকে ইজতেমা সূত্রগুলো বলছে, সা’দ কান্দালভী এবার আসবেন না। কিন্তু তার প্রতিনিধিদের আসার সম্ভাবনা আছে।

আরও পড়ুন:  থানার দেয়ালে আ.লীগ নেতার মাথা থেঁতলে দিল সন্ত্রাসীরা

জমজমের পানি নিয়ে গবেষণা করে জাপানি বিজ্ঞানীর বিস্ময়!

‘ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বৃদ্ধির পেছনে ধর্মহীন শিক্ষা ও অশ্লীল সংস্কৃতি দায়ী’

গত এক মাসে ৫২ টি ধর্ষণ, ২২টি গণধর্ষণ এবং ৫টি ধর্ষণের পর হত্যা

শিশুদের দিয়ে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তি, ভুয়া স্ত্রীসহ পুলিশের এসআই আটক

এখন থেকেপুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করা যাবে সরাসরি, খোলা হয়েছে কমপ্লেইন সেল

ফেসবুকে লাইক দিন