চকবাজারে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সরকারকে পদত্যাগ করতে বললেন রিজভী

ইমান২৪.কম: চকবাজারের চুড়িহাট্টায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সরকারকে পদত্যাগ করতে বললেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। রবিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) নয়পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি। সরকার চকবাজার ট্র্যাজেডির দায় এড়াতে পারে না- আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের দেওয়া এমন বক্তব্যের কথা উল্লেখ করে রিজভী বলেন, শুক্রবার ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে গিয়ে সাংবাদিকদের কাছে দায় স্বীকার করেছেন।

এখন যেহেতু দায় স্বীকার করেছেনই, তাহলে পদত্যাগ করুন। তিনি বলেন, স্বচ্ছ ভোট জালিয়াতির সাফল্যের মৌতাতে বুঁদ হয়ে থাকবেন না। দেশবাসীকে দয়া করে রেহাই দিন। পৃথিবীর কোন গণতান্ত্রিক সভ্য দেশে এই বিভীষিকাময় ঘটনা ঘটলে দায় স্বীকার করে সরকার পদত্যাগ করতো। রিজভী বলেন, পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টায় ভয়াবহ ও বিভীষিকাময় অগ্নিকাণ্ডে নিহত প্রায় একশত মানুষের মৃত্যুতে গোটা জাতির সাথে আমরাও শোকাহত। তিনি জানান, আমরা বিএনপির পক্ষ থেকে গতকাল শনিবার সারা দেশে শোক দিবস পালন করছি।

এখনো নিখোঁজ ১৫ জনের অধিক। হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে দগ্ধরা কাতরাচ্ছে। স্বজনদের কান্না আর বুক ফাটা আহাজারিতে আশপাশের পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে। বিএনপির সিনিয়র এই নেতা বলেন, এই মিডনাইট অবৈধ সরকার পুরান ঢাকার মৃত্যুপুরীর মৃত্যুর মিছিল নিয়ে কেবল বাগাড়ম্বর করছে। ভোট ডাকাতির সরকারের জনগণের প্রতি কোন জবাবদিহিতা না থাকায় খামখেয়ালী আচরণ করছে।

চকবাজারের ঘটনায় তিনি অভিযোগ করে বলেন, এখনো সরকারের পক্ষ থেকে কোনও ব্যবস্থা নেয়া হয়নি, তারা শুধু কথাই বলে যাচ্ছে। আগুন লাগা থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত তাদের আচরণ হলো ‘রোম যখন পুড়ছিল নিরো তখন বাঁশি বাজাচ্ছিল’ অবস্থার মতো।

তিনি বলেন, পুরান ঢাকায় মৃত্যুর সঙ্গে বসবাস করছেন বাসিন্দারা। আর সরকার নিজেদের অবৈধ মসনদ সুরক্ষায় গ্রেফতার-মামলা-অত্যাচারে ব্যস্ত। তথাকথিত উন্নয়নের নামে পকেট ভারী করা হয়েছে, অথচ জনগণের জন্য বাসযোগ্য পরিবেশ নিশ্চিত করা হয়নি।

আরও পড়ুন: বন্ধ হচ্ছে গাড়িতে সিলিন্ডার গ্যাস!

স্কুল-কলেজের ছাত্রদের চুলে রঙ ও বিশেষ ছাঁটে নিষেধাজ্ঞা

ফেসবুকে লাইক দিন