ঘূর্ণিঝড় ইয়াস: আল্লাহর রহমতে এবারও সুরক্ষা প্রাচীর হয়ে দাঁড়াতে পারে সুন্দরবন

ইমান২৪.কম: ২০১৯ সালের নভেম্বরে প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ যখন আঘাত হেনেছিল, আল্লাহর রহমতে তখন সুন্দরবনের উছিলায় বাংলাদেশ বেঁচে গেছিলো। হতাহত, ক্ষয়ক্ষতি সবকিছু সহ্য করেছিলো এই ম্যানগ্রোভ বনটি। এতে সুন্দরবনের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল।

আল্লাহ চাইলে এখন বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হতে যাওয়া ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’ এর হাত থেকে বাঁচাতে এবারও সুরক্ষা প্রাচীর হয়ে দাঁড়াতে পারে সুন্দরবন।

আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে যে পূর্বাভাস আছে, তাতে নিম্নচাপটি যদি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেয়, তাহলে সেটা বুধবার (২৬ মে) দুপুরের পর থেকে সন্ধ্যার মধ্যে আঘাত হানা শুরু করতে পারে।’

তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত বেশিরভাগ সম্ভাবনা হলো ভারতের ঊড়িষ্যা, পশ্চিমবঙ্গ, বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চলে ঘূর্ণিঝড়টি আঘাত হানতে পারে। বাংলাদেশের সুন্দরবনেও এর প্রভাব পড়তে পারে।’

ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হলে এ বিষয়ে আরও বিস্তারিত ও সুনির্দিষ্ট তথ্য দেয়া যাবে বলেও জানান আবদুর রহমান।

আবহাওয়াবিদ রুহুল কুদ্দুস বলেন, ‘ঘূর্ণিঝড় যে তৈরি হতে যাচ্ছে, এর সাইড-ইফেক্ট আগামীকাল (সোমবার) থেকে কিছুটা পড়তে পারে। আজ শেষ রাত থেকে চট্টগ্রাম, বরিশালে প্রভাব পড়া শুরু করতে পারে। বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা আছে।’

ঘূর্ণিঝড় বিষয়ে সর্বশেষ বিশেষ বিজ্ঞপ্তিতে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত সুস্পষ্ট লঘুচাপটি ঘনীভূত হয়ে একই এলাকায় নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি আরও ঘনীভূত হয়ে গভীর নিম্নচাপ এবং পরবর্তীতে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে উত্তরপশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে।

ফেসবুকে লাইক দিন