ঘুষি খেয়েও বলতে বাধ্য হলেন কাদের মির্জা আমাকে মারেননি

ইমান২৪.কম: ঈদুল আজহা উপলক্ষে অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণের সময় নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার আলোচিত মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বৃদ্ধকে ঘুষি মারার বিষয়ে মুখ খুললেন সেই বৃদ্ধ। শনিবার (১৭ জুলাই) সেই বৃদ্ধ আবার সাহায্য নিতে এসেছেন বসুরহাট পৌরসভা কার্যালয়ে। তার পরিচয় পাওয়া গেছে।

তিনি বসুরহাট পৌরসভার বাসিন্দা। তার নাম এনামুল হক কালু। বৃদ্ধ এনামুল হক কালু বলেন, কাপড় দেওয়ার সময় আমরা ঝামেলা করি দেখে মেয়র সাহেব (আবদুল কাদের মির্জা) হাত দিয়ে সরিয়ে দিয়েছেন। আমারে কোনো মারে নাই, কিচ্ছু করে নাই। তিনি খুব ভাল মানুষ। গরিব মানুষকে তিনি সাহায্য করেন।

তিনি আরও বলেন, আমি আজকে আবার এসেছি মেয়র সাহেবের কাছ থেকে চাল নেওয়ার জন্য। আমি নিজ থেকে এসেছি উনার বিরুদ্ধে আমার কোনো অভিযোগ নাই। উনি সব সময় আমাদের সাহায্য করেন।

এর আগে শুক্রবার (১৬ জুলাই) সকালে ঈদুল আজহা উপলক্ষে অসহায় ও দরিদ্রদের মাঝে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণের সময় নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার এক অসহায় বৃদ্ধকে ঘুষি মারার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন কাদের মির্জা। ২০ মিনিট ৫৮ সেকেন্ডের ফেসবুক লাইভের মধ্যে ১৭ মিনিট ৩০ সেকেন্ডের সময় দেখা যায়, কাদের মির্জা এক বৃদ্ধকে শাড়ি দিয়েছেন।

বৃদ্ধ শাড়িটি পরিবর্তন করতে চাইলে কাদের মির্জা তার বুকে ঘুষি মেরে সরিয়ে দেন। এরপর সেই বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার (১৬ জুলাই) রাত ৯টা ৪০ মিনিটে নিজের ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন মেয়র আবদুল কাদের মির্জা।

ফেসবুকে লাইক দিন