গু’লি চালিয়ে সরকার ইস’লামের বিপক্ষে অব’স্থান নিয়েছে: মাও’লানা ইসহাক

ইমান২৪.কম: খেলাফত মজলিসের আমীর মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেছেন, ভোলায় তাওহিদী জনতার বুকে গু’লি চালিয়ে সরকার ইসলাম ও মুসলমানদের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। ভোলার বোরহানউদ্দিনের তাওহিদী জনতা আল্লাহ ও হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর অবমাননার বিচার চেয়েছিলো।

কিন্তু সরকারের পুলিশবাহিনী নির্বিচার গু’লি চালিয়ে ভোলায় রক্তের বন্যা বইয়ে দিলো। তাওহিদী জনতার বুক ঝাঝরা করে দিয়েছে। এ জুলুম কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। ভোলার হ’ত্যাকান্ডের সুষ্ঠু তদন্তে বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করতে হবে। তাওহিদী জনতার উপর গু’লিবর্ষণকারী পুলিশ সদস্যদের বিচার করতে হবে।

আল্লাহ-হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে তথা ইসলাম অবমাননার বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তির বিধান রেখে আইন করতে হবে। ভোলার বোরহানউদ্দিনে তাওহিদী জনতার সমাবেশে পুলিশের নির্বিচার গু’লিবর্ষণে শাহাদৎবরণকারীদের জন্যে আয়োজিত দোয়া মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) বিকাল ৪টায় পুরাানপল্টনস্থ মজলিস মিলনায়তনে খেলাফত মজলিস ঢাকা মহানগরী সভাপতি শেখ গোলাম আসগরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাওলানা আজীজুল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের, যুগ্মমহাসচিব মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী,

কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ড. মোস্তাফিজুর রহমান ফয়সল, মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন মিয়াজী, অধ্যাপক মুহাম্মদ আবদুল হালিম, অধ্যাপক মোহাম্মদ আবদুল জলিল, হাফেজ মাওলানা জিন্নত আলী, হাজী হারুনূর রশীদ, কাজী আরিফুর রহমান, এডভোকেট সৈয়দ সানাউল্লাহ, ছাত্র মজলিস ঢাকা মহানগরী সভাপতি কে এম ইমরান হোসাইন, রাশেদ আহদ প্রমুখ।

সংগঠনের মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেন, মহানবী হজরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে অবমাননা মুসলমানদের হৃদয়ে রক্তক্ষরণের সৃষ্টি করে। ইসলাম অবমাননার বিচার চাইতে গেল তাদেরকে পাখীর মত গু’লি করে শহীদ করা হলো, শতাধিক লোককে মারা’ত্ম’কভাবে আহত করা হলো।

আবার সেই প্রতিবাদী তাওহিদী জনতার বিরুদ্ধে পুলিশী মা’মলা করা হয়েছে। এ হ’ত্যাকান্ডের বিচার করতে হবে। সাধারণ জনতার বিরুদ্ধে দায়ের করা পুলিশী মা’মলা তুলে নিতে হবে। ধর্মীয় অবমাননা বন্ধে কঠোর আইন প্রনয়ন করতে হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন