গজব শুরু! ইসরাইলে উপাসনালয়ের মঞ্চ ভেঙ্গে ২ ইহুদির মৃত্যু ও আহত শতাধিক

ইমান২৪.কম: ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলে সিনাগগের মঞ্চ ধ্বসে ১৬০ জন উগ্র ইহুদিবাদী আহত ও ২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। দখলকৃত ফিলিস্তিনের পবিত্র কুদস শহরের নিকটে গিভাত জা’ইভ নামক অবৈধ ইহুদি বসতিতে সিনাগগটির অবস্থান বলে জানা যায়।

সিনাগগ হলো ইহুদি উপাসনালয় যেখানে তানাখ অর্থাৎ তাওরাত বিশিষ্ট বাইবেল পাঠ করা হয়। ইসরাইল এম্বুলেন্স সার্ভিসের তথ্যমতে, আহত ১৬০ জনের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। জানা যায়, শত শত ইহুদিবাদী ইসরাইলী শাভ্যুয়াত পালনের উদ্দেশ্যে সিনাগগটিতে জড়ো হয়েছিলো। ধারণক্ষমতার চেয়ে বেশি ইহুদির উপস্থিতির কারণে সিনাগগের আসন বিশিষ্ট মঞ্চটি ধ্বসে পড়ে।

তবে ইসরাইল এম্বুলেন্স সার্ভিসের ওই মুখপাত্র দাবি করেন যে, সিনাগগের আসন বিশিষ্ট মঞ্চটি নির্মাণাধীন ছিলো যার কারণে তা ভেঙ্গে গিয়েছে। শাভ্যুয়াত হলো কয়েক সপ্তাহের ইহুদি ঈদ উদযাপন।

ইহুদি বিশ্বাস মতে শাভ্যুয়াত হলো, ফিরআউন থেকে ইহুদিদের নিস্তার লাভ, হযরত মূসা (আ:) তার খোদা থেকে তাওরাত প্রাপ্তি এবং সিনাই পর্বতমালায় আল্লাহ তায়ালা বনী ইসরাইলকে শস্য স্বরূপ সর্বপ্রথম গম প্রদানের সাপ্তাহিক একটি দিন! এদিকে, সিনগগের মঞ্চ ধ্বসে হুড়মুড়িয়ে ইহুদিদের চাপা পড়ার ভিডিও ক্লিপটি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে শেয়ার করে অনেকে লিখেছেন, মাজলুম ফিলিস্তিনিদের দোয়ার ফলশ্রুতিতে এই ধ্বসে পড়ার ঘটনাটি ঘটেছে।

ইহুদিবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের পুলিশের তথ্যমতে, ঘটনার সময় প্রায় ৬৫০ জন ইহুদি সিনাগগটিতে উপস্থিত ছিলো।

চ্যানেল ১২ নামক একটি টিভি চ্যানেলের ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, নীচ থেকে ক্রমান্বয়ে উপরের দিকে উঠে যাওয়া মঞ্চের সারিবদ্ধ আসনগুলোর একেবারে উপরের দিক প্রথমে ধ্বসে পড়ে যায় এবং পরবর্তীতে বাকিরা একে অপরের উপর হুড়মুড়িয়ে পড়তে থাকে!

উল্লেখ্য, গত মাসেও করোনার মধ্যে প্রচুর জনসমাগম ঘটিয়ে লাগ বাওমার নামক ইহুদি উৎসব পালন করতে গিয়ে প্রায় অর্ধশতাধিক উগ্র ইহুদিবাদী ইসরাইলীর মৃত্যু ঘটে এবং আহতের সংখ্যা ছিলো দেড় শতাধিক। সূত্র: আল জাজিরা মুবাশির

ফেসবুকে লাইক দিন