করোনা বিপর্যয়ের মধ্যেও নরেন্দ্র মোদির প্রকাশ্যে ‘মুসলিম বিরোধিতা’

ইমান২৪.কম: ভাইরাস যখন বিশ্বজুড়ে সর্বস্তরের মানুষের মূল্যবান জীবন বিপন্ন করছে, ঠিক তখন ভারতে মোদী সরকার এই মহামারী চলাকালীনও মুসলিম বৈরিতা বজায় রেখেছে।

ভারতে করোনার ভাইরাসে আক্রান্ত মুসলিম রোগীদের সনাক্ত করে আলাদা ভাবে সিল মেরে দেয়া হচ্ছে তাদের হাতে। শুধু হিন্দু রোগীদের দেয়া হচ্ছে বিশেষ সুবিধা।

ব্রিটিশ নিউজ এজেন্সি রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুম্বাইয়ের ৬০ বছর বয়সী ইকবাল হুসেন সিদ্দিকী নামের এক করোনা রুগী নানান ভাবে নির্যাতিত হচ্ছেন।

সেই সাথে স্বাস্থ্যকর্মীদের বৈরিতার শিকারদের মধ্যে রয়েছেন, জানা যায় তার হাতে সিল মেরে ঐ বেক্তির বাড়িতে একটি ঘরে আটকে রাখা হয়েছে। করোনার ভাইরাসে আক্রান্ত ইকবাল হুসেন ডিম বিক্রি করতেন যার কারণে টাকার অভাবে সঠিক চিকিত্সা করতে পারছেন না।

ইকবাল হোসেন বলেন , তাকে এমন একটি ঘরে রাখা হয়েছে যেখানে কোনো সুরক্ষা নেই। এবং তেমনিভাবে, সমস্ত মুসলিম রোগীদের ইচ্ছাকৃতভাবে চিকিত্সা সুবিধা দেয়া হচ্ছে না। তিরয়টার্সের মতে তারা এক ডজনেরও বেশি মুসলিম সম্প্রদায়ের সদস্যদের সাথে কথা বলে।

তারা সকলেই মোদী সরকারের পক্ষপাতিত্বের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ধারণা করা হয় যে করোনার ভাইরাসের কারণে ভারতে এখন পর্যন্ত ৪৩৭ জন নিহত হয়েছেন।

বিশ্বে করোনার ভাইরাসের ২২ মিলিয়নেরও বেশি আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে, যার মধ্যে এক লক্ষেরও বেশি মারা গেছে।যুক্তরাষ্ট্রে কমপক্ষে ছয় মিলিয়ন ৪০,০০০ ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তি নিশ্চিত হয়ে গেছে, যার মধ্যে ৩০,৫০০ এরও বেশি লোক মারা গেছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, মার্চের মাঝামাঝি থেকে ২ কোটিরও বেশি মানুষ বেকার হয়েছেন। লকডাউন যুক্তরাজ্যে তিন সপ্তাহের জন্য বাড়ানো হয়েছে, অন্যদিকে নিউইয়র্কের লকডাউন ১৫ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন