কুরআনের সম্মান রক্ষাকারী সেই যুবককে সাধুবাদ জানালেন আল্লামা তাকী উসমানী

ইমান টোয়েন্টিফোর ডটকম: উত্তর ইউরোপের দেশ নরওয়েতে এক খৃস্টান কোরআনের একটি কপি জ্বালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে জনসম্মুখে তার উপর ঝাপিয়ে কোরআনের কপিটি রক্ষা করতে চেষ্টা করেন ইলিয়াস নামের এক যুবক। কোরআন রক্ষার এই ভিডিওটি সমাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিশ্বজুড়ে তার প্রশংসা করা হয়। তবে কুরআন পোড়ানোর এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে সামাজিক মাধ্যমে সরব হন অনেকেই।

প্রখ্যাত মুসলিম ব্যক্তিত্ব, পাকিস্তানের বিশিষ্ট আলেম আল্লামা তাকী উসমানি ইলিয়াস নামের যুবককে সাধুবাদ জানিয়ে এক টুইট বার্তায় লেখেন, বিশ্বব্যাপী মুসলিম শাসকদের এই ঘটনার প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়া উচিত এবং ইলিয়াস নামের এই যুবকের নিরাপত্তা বিধান কর্তব্য।

আল্লামা তাকী উসমানি তার টুইট বার্তায় আক্ষেপ করে বলেন, কুরআন জ্বালিয়ে দেওয়ার মতো কত নির্মম এক ঘটনা ঘটতে যাচ্ছিল। অথচ এই খবর প্রচার হতে কত সময় লাগল! মিডিয়তে এই খবর কোনো গুরুত্ব বহন করল না!

‘মুসলমানদেরকে দয়া এবং নম্রতার পাঠ দিতে চাওয়া ইউরোপে কুরআনে কারীমের সাথে এমন কাপুরুষোচিত এবং হঠকারিতার চরম সীমায় পৌঁছে গেছে। তারা কুরআন অবমাননার জন্য নিয়মতান্ত্রিকভাবে একটা অনুষ্ঠান করতে যাচ্ছিল। সাধুবাদ সেই যুবককে যে এই অবমাননার উচিত জবাব দিয়েছে।

এদিকে কুরআনে কারীম জ্বলিয়ে দিতে চাওয়ার ঘটনার নিন্দা জানিয়ে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর মুখপাত্র জেনারেল আসিফ গফুর ইলিয়াসকে অনেক সাধুবাদ জানিয়েছেন। পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে তাকে সালাম জানিয়েছেন।

তাছাড়া এ ঘটনায় সামাজিক মাধ্যমে ইলিয়াসকে ‘হিরো অব দ্য মুসলিম’ উপাধিতে আখ্যায়িত করা হচ্ছে।

এস এম/ ইমান টোয়েন্টিফোর ডটকম

ফেসবুকে লাইক দিন