কালিমা পড়তে পড়তে ই’ন্তেকাল করেন আবরার ফাহাদ: জানালেন প্র’ত্যক্ষদর্শী

ইমান২৪.কম: ভারত বিরোধী পোস্ট দেয়ায় ছাত্রলীগ নেতাদের হাতে খু’ন হওয়া বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ মৃ’ত্যুর আগ মুহূ’র্তে পানি পান চাইলেও খুনিরা তাকে পানি দেয়নি।

এ কথা জানিয়েছেন আবরারের সহপাঠীরা। তারা জানায় শেষ মুহূর্তে পানি না পেয়ে কালিমা পড়তে পড়তে ইন্তেকাল করে শহীদ আবরার। ছাত্র বি’ক্ষোভে অংশ নিয়ে আবরার ফাহাদকে নি’র্যাতনের বর্ণনা দেন

ওই দিনের প্রত্য’ক্ষদর্শী বুয়েটের শিক্ষার্থীরা। আব’রারের সহপাঠীরা জানান, আবরার মৃ’ত্যুর আগ মুহূর্তে পানি পান করতে চায়। কিন্তু খু’নিরা তাকে পানি দেয়নি। শেষ মুহূর্তে সে আল্লাহর কাছে নিজের ক্ষমা

চেয়ে নেয়, এবং কালিমা পড়তে পড়তে ই’ন্তেকাল করে। সেদিনের নি’ষ্ঠুর ঘটনার প্রত্যক্ষ’দর্শী বুয়েটের শিক্ষা’র্থীরা মহিউদ্দিন বর্বরতার বর্ণনা দিতে গিয়ে কেঁ’দে ফেলেন তিনি। বুয়েটের শেরেবাংলা হলের

শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন কা’ন্নায় ভেঙে পড়ে জানান, আবরার তখনও কাত’রাইতেছে, জিয়ন বললো, ফেলে রাখ ও না’টক করতেছে। মহিউদ্দিন বলেন, আমার আছে অনু’তাপবোধ। আমি খাইতে বের হইছি,

তখন আ’ড়াইটা বাজে। আমি চি’ন্তাও করতে পারিনি হলে এমন কিছু হইছে। আমার রুমমে’টরে বলতেছি মনে হয় মৃ’গীরোগ, হাসপাতালে নিতে হইবো। জিয়ন ওইখানে বসে বলতেছে, ও নাট’ক করতাছে।

ওরে ওইখানে ফেলে রাখ। নিষ্ঠু’রতার লেভেল আছেরে ভাই! আমি তিন রাত খাইতে পারি নাই। আমি ওরে বাঁচাতে পারি নাই। আমারে মাফ কই’রাদিস ভাই। আমি তোরে রাইখা ওই অ’বস্থায় খাইতে চলে আসছি।

ফেসবুকে লাইক দিন