কারাগারে সাধারণ বন্দিরের সঙ্গে ফ্লোরে রাখা হয়েছে ব্যারিস্টার মইনুলকে!

ইমান২৪.কম: সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে কটুক্তির অভিযোগে মানহানির মামলায় গ্রেফতার সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন কেরানীগঞ্জে অবস্থিত ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের করতোয়া সেলে সাধারণ বন্দিদের সঙ্গে অবস্থান করছেন।তার সঙ্গে আরও ৩০-৩৪ জন বন্দি আছেন। আদালতের নির্দেশে বুধবার কারাগারে যাওয়ার পর তাকে তিনটি কম্বল দেয়া হয়। একটি কম্বল ফ্লোরে বিছিয়েছেন। অন্যটি ব্যবহার করেছেন বালিশ হিসেবে। অপরটি গায়ে দিয়ে তিনি রাত্রী যাপন করছেন।

ব্যারিস্টার মইনুলকে যে ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে সেখানে কোনো খাট কিংবা চেয়ারের ব্যবস্থা নেই। কারাগারের সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা এসব তথ্য জানিয়েছেন।কারাসূত্র জানায়, ব্যারিস্টার মইনুলকে সাধারণ বন্দিদের কাছে নেয়ার পর তিনি জানতে চান, তাকে কেন ডিভিশন দেয়া হয়নি। তখন সংশ্লিষ্ট কারা কর্মকর্তা তাকে বলেন- আদালত আপনাকে ডিভিশন দেননি। যতক্ষণ পর্যন্ত আদালত আপনাকে ডিভিশন দেয়ার নির্দেশ না দেবেন ততক্ষণ পর্যন্ত আপনাকে সাধারণ বন্দিদের সঙ্গেই থাকতে হবে।

সূত্রটি জানায়, মইনুল হোসেনকে কারাগারের সাধারণ খাবারই খেতে দেয়া হচ্ছে। সকালে তাকে রুটি, গুড় ও ডাল দেয়া হয়। দুপুরে তিনি সবজি, ভাত ও ডাল খেয়েছেন। রাতে ভাত, মাছ ও ডাল দেয়া হয়েছে।ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের সঙ্গে কারাগারে কেউ সাক্ষাৎ করেছেন কিনা জানতে চাইলে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহাবুবল ইসলাম বলেন, টিকিট কেটে সাক্ষাৎপ্রার্থীদের রুমে ৭ দিন পর পর যে কোনো বন্দির স্বজন দেখা করতে পারেন। কোনো বন্দি যেদিন কারাগারে আসেন ইচ্ছা করলে তার স্বজনরা সেদিনই দেখা করতে পারেন। কিন্তু ব্যারিস্টার মইনুলের কোনো স্বজন বৃহস্পতিবার পর্যন্ত তাকে দেখতে আসেননি।

আরও পড়ুন: 

জামিন আবেদন নামঞ্জুর, কারাগারে ব্যারিস্টার মইনুল

তারেকের নেতৃত্ব ধ্বংস করতেই ড. কামালকে আনছি : মইনুল হোসেন

রাতের আঁধারে শাড়ি-লুঙ্গি-মিষ্টি নিয়ে বাড়ি বাড়ি আ.লীগের এমপি জগলুল

কওমি সনদের স্বীকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা নয়, হবে শুকরিয়া মাহফিল

জামায়াতে ইসলামীকে নির্বাচন থেকে দূরে রাখার কোনো আইন নেই: ইসি সচিব

ফেসবুকে লাইক দিন