কাদিয়ানি ইজতেমা বন্ধে পঞ্চগড়ে ব্যাপক সংঘর্ষ, আহত অন্তত ৫০

ইমান২৪.কম: পঞ্চগড়ে কাদিয়ানিদের ইজতেমা বন্ধের দাবি জানানো ধর্মপ্রাণ মানুষের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আশপাশের এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

মঙ্গলবার রাত ৯টা থেকে সোয়া ১১টা পর্যন্ত চলে এ সংঘর্ষ। এতে অন্তত ৫০ জন এলাকাবাসী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

জানা যায়, প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ইজতেমা বন্ধের আশ্বাস দিলে রাত সাড়ে ১১টায় পরিস্থিতি শান্ত হয়। শহরে ও আহমদনগর এলাকায় পুলিশ ও বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে জেলা শহরসহ ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

রাত সাড়ে ৮টার দিকে সম্মিলিত খতমে নবুওয়ত সংরক্ষণ পরিষদ, ঈমান আকিদা রক্ষা কমিটি ও পঞ্চগড় যুব সমাজ নামে কয়েকটি সংগঠনের ব্যানারে জনতা কাদিয়ানিদের ইজতেমা বন্ধে বিক্ষোভ মিছিল করে। মিছিল শেষে তারা পঞ্চগড় শহরের শেরেবাংলা পার্ক মোড়সংলগ্ন পঞ্চগড়-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করেন।

জানা যায়, কাদিয়ানিদের ইজতেমা বন্ধের ঘোষণা না দিয়ে বরং প্রশাসন সীমিত আকারে ইজতেমার কথা বললে আন্দোলনরত জনতা আরও বিক্ষুব্ধ হয়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বেঁধে যায়।

এদিকে বিক্ষুব্ধ জনতা ইজতেমার প্যান্ডেলের দিকে যেতে থাকলে কাদিয়ানি সদস্যরা লাঠিসোঠা নিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এতে অনেক মুসল্লি গুরুতর আহত হয়।

পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন জানান, মুসল্লিদের দাবি ছিল জলসা বন্ধ করলে তারা তাদের অবরোধ তুলে নেবে। আমরা জলসা স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছি। তবে গতকালের ঘটনা দুঃখজনক।

আরও পড়ুন: ধর্ম যার যার উৎসব সবার : বললেন প্রধান বিচারপতি

দফায় দফায় বাংলাদেশে ঢুকানো হচ্ছে মিয়ানমারের বৌদ্ধদের!

স্কুলে ধর্ম শিক্ষক হিসেবে কওমি শিক্ষার্থীদের নিয়োগের দাবি সংসদে (ভিডিও)

‘রাস্তায় নামেন, রাস্তায় বসে মোনাজাত ধরেন’: বিএনপিকে ডা. জাফরুল্লাহ

ভোটে অনিয়ম, মামলা করবে বিএনপি : ভিডিও কনফারেন্সে তারেক রহমানের সিদ্ধান্ত

যখনই আমি ভুল করবো আপনি শুধরে দিবেন: মাওলানা তারিক জামিলকে ইমরান খান

ফেসবুকে লাইক দিন