কওমী মাদ্রাসা খোলার বিষয়ে বৈঠকে যে সিদ্ধান্ত হলো

ইমান২৪.কম: কওমী মাদরাসাসমূহ কবে খোলা হতে পারে এ বিষয়ে ‘বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড’সমূহের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দের সাথে ‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী’র আজ শুক্রবার, বেলা ১১ টায় যে মিটিং হওয়ার কথা ছিল তা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত মিটিংয়ে মাদ্রাসাসমূহ খোলার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়নি।

আজ দুপুরে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ’র অফিসে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পরবর্তীতে শিক্ষামন্ত্রণালয় ও অন্যান্যদের সাথে কথা বলে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানাবেন। তবে এখন কওমি মাদরাসা সমূহের ভর্তি কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার কথা বলা হয়েছে।

আরো পড়ুন>> করোনায় আক্রান্ত গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ও প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

গতকালের চেয়ে আজ কিছুটা ভালো বোধ করছেন তিনি। আজ শুক্রবার জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দপ্তর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, সকালে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর সাথে কথা হয়েছে তার। তিনি গতকালের থেকে আজ ভালো বোধ করছেন।

গতকাল জাফরুল্লাহ চৌধুরীর অক্সিজেন লেভেল কমে গিয়েছিল, পরে আবার ঠিক হয়ে যায়। তিনি আগের থেকে এখন ভালো বোধ করছেন।

আগে কিছুটা জ্বর থাকলেও আজ জ্বর নেই। এখন তার (ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী) বয়স হয়েছে, শরীরে কিছুটা ব্যথা আছে। তবে তার শরীর যথেষ্ট ফিট আছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

এর আগে গত ২৪ মে গণস্বাস্থ্যের আবিষ্কৃত কিটের মাধ্যমে নমুনা পরীক্ষা করা হলে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর করোনা পজেটিভ আসে। পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর নমুনা পাঠানো হয়।

বৃহস্পতিবার সেখানকার পরীক্ষার রিপোর্টেও তার করোনা পজেটিভ আসে। এদিকে, করোনা পজেটিভ আসার পর থেকে তিনি বাড়িতেই আইসোলেশনে আছেন। করোনার চিকিৎসা হিসেবে ২৬ মে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র নগর হাসপাতালে ‘ও পজিটিভ’ ব্লাড গ্রুপের ২০০ মিলি প্লাজমা দেয়া হয় তাকে।

ফেসবুকে লাইক দিন