এতিম শিশুকে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে পেটালেন আ. লীগ নেতা

ইমান২৪.কম: লক্ষ্মীপুরে মুহাম্মদ নূর (১২) নামের এক শিশুকে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে এক আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে।

অভিযুক্ত আওয়ামী লীগ নেতার নাম জয়নাল আবেদিন। তিনি সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি বলে জানা গেছে।

রোববার বিকেলে সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের বাবলা তলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার শিশুটি একই এলাকার মৃত দুলাল মিয়ার ছেলে। তার মা মালেকা বেগম ভিক্ষা করে সংসার চালান বলে জানা যায়।

শিশুটির মা মালেকা বেগম অভিযোগ করে বলেন, সকালে ভিক্ষা করার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়ে বাড়িতে ফিরে শুনতে পান জয়নালসহ কয়েকজন নূরকে পিটিয়ে আহত করেছে। পরে পুলিশ এসে নূরকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে গেছেন তিনি।

ছেলের চিকিৎসা করার জন্য তিনি বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। জয়নালসহ তার লোকজন তাকে বের হতে বাধা দিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

স্যার, আমি জাহালম, সালেক না…’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রথম আলোর এই প্রতিবেদনটি তিনি আদালতের নজরে আনেন। শুনানি নিয়ে আদালত স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে জাহালমের আটকাদেশ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন। চার সপ্তাহের মধ্যে এই রুলের জবাব দিতে বলেছেন হাইকোর্ট।

অমিত দাশ গুপ্ত আরও বলেন, প্রকৃত আসামিকে খুঁজে বের না করে কেন নিরীহ শ্রমিক জাহালমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে? এ ঘটনার ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য দুদকের চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি, মামলার বাদী, স্বরাষ্ট্রসচিবের প্রতিনিধি এবং আইনসচিবের প্রতিনিধিকে আদালতে হাজির থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

অমিত দাশ গুপ্ত জানান, জাহালমের আটকাদেশ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, এই রুলের জবাব দেওয়ার জন্য দুদক চেয়ারম্যানের প্রতিনিধি, স্বরাষ্ট্রসচিব, আইনসচিব, মামলার বাদী, সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

শুনানির সময় রাষ্ট্রপক্ষে আদালতে উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আবু সালেকের বিরুদ্ধে সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির ৩৩টি মামলা হয়েছে। কিন্তু আবু সালেকের বদলে জেল খাটছেন, আদালতে হাজিরা দিয়ে চলেছেন এই জাহালম।

জাহালমের কারাবাসের তিন বছর পূর্ণ হবে আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি। দুদক এখন বলছে, জাহালম নিরপরাধ প্রমাণিত হয়েছেন। তদন্ত করে একই মত দিয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনও। তাই একটি মামলায় তাঁর জামিন হয়েছে। আরও ৩২টি মামলায় জামিন পাওয়ার অপেক্ষায় আছেন তিনি।

আরও পড়ুন:  ভাঙছে পাকিস্তান, সৃষ্টি হচ্ছে আরেকটি বাংলাদেশ?

অভ্যন্তরীণ কোন্দলে ছাত্রলীগ কর্মীর পায়ের রগ কেটে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

সিজার করতে গিয়ে নবজাতককে কেটে ফেললেন চিকিৎসক : আটক ৩

শিশুদের দিয়ে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তি, ভুয়া স্ত্রীসহ পুলিশের এসআই আটক

আ.লীগ এক হাজার বছর চেষ্টা করলেও ২৮৮ টি আসন পেতে পারে না: কর্নেল অলি

‘স্যার, আমি জাহালম, সালেক না’ : ৩৩ মামলায় ‘ভুল’ আসামি ৩ বছর ধরে জেলে

ফেসবুকে লাইক দিন