এক সঙ্গে জন্মের পর একই সঙ্গে মৃত্যু হলো দুই বোনের

ইমান২৪.কম: চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের কালীতলা মহল্লায় খাদ্য বিষক্রিয়ায় স্বর্ণা ও সম্পা নামে দুই জমজ বোনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্বর্ণা ও বেলা দেড়টার দিকে স্বপ্না মারা যায়। জানা গেছে, হোটেল থেকে আনা খাবার খেয়ে খাদ্য বিষক্রিয়ায় তাদের মৃত্যু হয়েছে।

তারা ওই এলাকার সাদিকুল ইসলাম রবির মেয়ে। এ ঘটনায় স্বর্ণা-সম্পার মা সাবিনা ইয়াসমিন ও সিফাত আলী নামে এক আত্মীয় গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি আছেন। সাদিকুল ইসলাম রবি জানান, গতকাল সোমবার বিকেলে শহরের পুরাতন বাজার এলাকার হোটেল শাহজাহান থেকে মোগলাই পরোটা কিনে বাড়িতে পরিবারসহ তিনি খান।

এরপর রাতে তার স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন, মেয়ে স্বর্ণা (১৭) ও স্বম্পা (১৭) এবং আত্মীয় সিফাত (২০) অসুস্থ হয়ে পড়ে। প্রতিবেশীরা তাদের সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে স্বর্ণা ও তার মাকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয় এবং স্বপ্না ও সিফাতকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এদিকে বাড়ি আসার পরেই স্বর্ণা মারা যায়। অন্যদিকে স্বপ্নার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে দুপুরে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয় এবং সেখানে নেওয়ার পথে বেলা দেড়টার দিকে সেও মারা যায়। শাহজাহান সুইটসের মালিক জামাল উদ্দিন নাসের বলেন, ভোরে সাদিকুল ইসলাম এসে জানান আমার হোটেলের মোগলাই খেয়ে নাকি তাদের পরিবারের কয়েকজন সদস্য অসুস্থ হয়েছে।

পরে জানতে পারি তার এক মেয়ের মৃত্যু হয়েছে। তবে সাদিকুল ইসলামের পরিবার ছাড়া আর কেউ আমার দোকানের মোগলাই খেয়ে অসুস্থ হননি। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালের আরএমও ডা. নুরুন্নাহার নাসু বলেন, খুব সকালে একই পরিবারের চারজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের মধ্যে স্বর্ণা হাসপাতালে ভর্তির আগেই মারা যায়।

স্বপ্নাকে ভর্তি করা হলেও তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তিনি আরো বলেন, পরিবারের বক্তব্য অনুযায়ী হোটেলের খাবার খেয়ে তারা অসুস্থ হয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়া সবার প্রচণ্ড পেট ব্যথা ও বমি হচ্ছিল। সাধারণত খাবারে সমস্যা থাকলে পরিবারের একাধিক সদস্য একসঙ্গে অসুস্থ হয়ে থাকে। তবে ময়নাতদন্ত ছাড়া প্রাথমিকভাবে হোটেলের খাবারের কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে এটি বলা যাবে না। সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মিন্টু রহমান জানান, মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ফেসবুকে লাইক দিন