এক লাখ রোহিঙ্গাকে দুর্যোগপূর্ণ দ্বীপে পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ: এনডিটিভি

ইমান২৪.কম: মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর হত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতনের মুখে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা এক লাখ রোহিঙ্গাকে পুনর্বাসনের জন্য ভাসানচরে পাঠানো হচ্ছে।

বাংলাদেশের প্রশাসনের বরাতে এ খবর দিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়ছে, ভাসানচর এলাকাটি খারাপ আবহাওয়া ও দুর্যোগপূর্ণ হওয়া সত্ত্বেও ওখানেই আগামী মাস থেকে স্থানান্তরিত করা হবে শরণার্থীদের।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ৩ অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে ভাসানচরে বাস্তুচ্যুত মুসলমানদের জন্য নবনির্মিত আশ্রয়কেন্দ্রগুলোর উদ্বোধন করবেন।

প্রতিবেদনে আরো উল্লেখ করা হয়, ভাসানচর ২০০৬ সালে বঙ্গোপসাগর থেকে জেগে ওঠা একটি কর্দমাক্ত ক্ষুদ্র দ্বীপ। মিয়ানমারের সীমান্তের কাছে ভিড়ে ঠাসা উদ্বাস্তু শিবির থেকে শরণার্থীদের ওই দ্বীপে পাঠানোর কথা ছিল জুন মাসেই।

আরও সংবাদঃ মোদির প্রতি খোলা চিঠি, দেওবন্দ ছাত্র সংঘটনের পক্ষ থেকে

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের এক শীর্ষস্থানীয় কর্তা জানিয়েছেন, নৌবাহিনী ওই এক লাখ শরণার্থীর জন্য আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণের দায়িত্ব নেয়। ইতোমধ্যে কাজ শেষের পথে।

দ্বীপটি নিকটতম মূল ভূখণ্ড থেকে নৌকায় যেতে এক ঘণ্টা লাগে, কিন্তু ভয়ানক ঝড় বা সমুদ্রের বিপজ্জনক তুফানে মাঝে মাঝে ওই দ্বীপে যাওয়া অসম্ভব হয়ে ওঠে।

গত বছর আগস্ট মাসে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা ৭ লাখ রোহিঙ্গা মুসলমান পালিয়ে আসেন বাংলাদেশে। শরণার্থী শিবির উপচেপড়ায় তাদের পুনর্বাসনের প্রকল্প নেয়া হয়।

আরও সংবাদঃ অবশেষে বহুপ্রতীক্ষিত কওমি মাদরাসা সনদের বিল পাস হলো সংসদে

বাংলাদেশের মানুষের জন্য শেখ হাসিনার চেয়ে আপন আর কেউ নেই: সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

ফেসবুকে লাইক দিন