এক প্রাইভেট কারে চার গরু

ইমান২৪.কম: গাজীপুরে পুলিশের ধাওয়ায় ফেলে যাওয়া একটি প্রাইভেট কার থেকে ৪টি চোরাই গরু উদ্ধার করা হয়েছে। পরে পালানোর সময় দুর্ঘটনার কবলে পড়ে ১টি গরু মারা যায় এবং আরেকটি গরু জবাই করা হয়।

সোমবার (৫ জুলাই) দুপুরে মরা গরুর মাংসসহ ৩ জনকে হাতেনাতে আটক করে জিএমপির টঙ্গী পশ্চিম থানা পুলিশ। গাজীপুরের টঙ্গী পূর্ব থানার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরা বাঁশপট্টি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলেন- টঙ্গী পশ্চিম থানার আউচপাড়া এলাকার মৃত আদম আলির ছেলে দুলাল (৪০) ও একই এলাকার আব্দুল জব্বারের ছেলে আহমেদ উল্লাহ (৪৫)। দুপুর ১২টার দিকে টঙ্গীর এরশাদনগর এলাকার ওয়ান ব্যাংক শাখার পেছন থেকে তাদের আটক করা হয়। টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ওসি শাহ আলম বলেন, প্রাইভেট কারে গরু নিয়ে পালানোর সময় একটি গরু মারা যায়। সেটিকে সড়কের পাশ থেকে তুলে নিয়ে যান আটক ওই দুই ব্যক্তি। সকাল ৮টার দিকে এরশাদনগর ওয়ান ব্যাংক শাখার পেছনে নিয়ে মৃত গরুটি জবাই করে বিক্রি করেছিলেন তারা। খবর পেয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় গরুর মাংসগুলো জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার (অপরাধ-দক্ষিণ) মোহাম্মদ ইলতুৎ মিশ বলেন, কাপাসিয়া থেকে প্রাইভেট কারে গরু নিয়ে ঢাকার দিকে যাচ্ছিল চোর চক্র।

সোমবার ভোর ৫টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের গাজীপুরা এলাকা পার হওয়ার সময় সন্দেহ হলে তাদের গাড়ি থামানোর সিগন্যাল দেয় পুলিশ। সিগন্যাল অমান্য করে পালানোর চেষ্টা করলে সড়ক বিভাজকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে প্রাইভেট কারটি দুর্ঘটনার শিকার হয়।

এ সময় পুলিশ ধাওয়া দিলে প্রাইভেট কার থেকে দুই ব্যক্তি দৌড়ে পালিয়ে যান। ফেলে যাওয়া প্রাইভেট কার থেকে তিনটি গরু জীবিত ও একটিকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে একটি গরু অসুস্থ হয়ে পড়লে জবাই করা হয়। দুটি গরু ও প্রাইভেট কারটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

এদিকে পুলিশের ফেলে যাওয়া মৃত গরুটি সড়কের পাশ থেকে নিয়ে গিয়ে বিক্রির অভিযোগে দুজনকে আটক করা হয়েছে। গরুর মালিক কাপাসিয়া উপজেলার ভাওয়াল চাঁদপুর ইউনিয়নের ভাকুছাত গ্রামের ফয়েজ উদ্দিনকে দুটি গরু বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানান উপ-পুলিশ কমিশনার।

ফেসবুকে লাইক দিন