আসছে শব্দের চেয়ে অধিক গতিবেগ সম্পন্ন উড়োজাহাজ ‘এক্স-প্লেন’

আসছে শব্দের চেয়ে অধিক গতিবেগ সম্পন্ন উড়োজাহাজ ‘এক্স-প্লেন’। প্রযুক্তি নির্মাণ প্রতিষ্ঠান লকহেড মার্টিনকে শব্দের চেয়ে অধিক গতিবেগ সম্পন্ন উড়োজাহাজ ‘এক্স-প্লেন’ তৈরির দায়িত্ব দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। সাধারণত এই ধরনের উচ্চ গতিসম্পন্ন বিমানে প্রচণ্ড জোরে শব্দ হলেও নতুন উড়োজাহাজটি খুব বেশি শব্দ না করেও শব্দের চেয়ে বেশি গতিতে উড়তে পারবে।

‘এক্স-প্লেন’ বিমানটির নকশা, তৈরি ও পরীক্ষা করতে প্রায় ২৫ কোটি ডলার খরচ হবে। নাসা বলছে, ২০২১ সালে এটি প্রথম পরীক্ষামূলকভাবে উড়ানো হবে।

নাসা জানিয়েছে ভূপৃষ্ঠের ৫৫ হাজার ফুট উপর দিয়ে ঘণ্টায় ৯৪০ মাইল বেগে উড়ে যাবে এই ‘এক্স-প্লেন’। কিন্তু, এটিতে সনিক বুম, অর্থাৎ গতির কারণে প্রচণ্ড জোরে শব্দ হবে না। একটি গাড়ির দরজা বন্ধ করলে যতটা শব্দ হয় ততটাই শব্দ তৈরি করবে এটি।

২০২২ সালের মাঝামাঝি সময়ে নাসা এই এক্স-প্লেন যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি শহরের উপর দিয়ে উড়িয়ে তথ্য ও জনগোষ্ঠীর প্রতিক্রিয়া সংগ্রহ করবে বলে জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা বলেছে, তাদের লক্ষ্য হচ্ছে শব্দের অধিক গতিসম্পন্ন বাণিজ্যিক মালামাল ও যাত্রী পরিবহন ফ্লাইট চালু করতে সহায়তা করা।

কিন্তু, লকহেড মার্টিন যে উড়োজাহাজটি বানাচ্ছে তাতে যাত্রীদের জন্য কোনো আসন নেই। প্রথমে প্রতিষ্ঠানটিকে প্রমাণ করতে হবে শব্দের চেয়ে দ্রুত গতির উড়োজাহাজটি নিরবে উড়তে পারে। এরপর, কর্তৃপক্ষ এধরনের বিমানে যাত্রী পরিবহনে যে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা পরিবর্তন করবে।

এছারা ভার্জিন গ্যালাকটিক ও স্পাইক এরোস্পেস, এই দুটি প্রতিষ্ঠানও শব্দের চেয়ে বেশি গতিসম্পন্ন যাত্রীবাহী উড়োজাহাজ তৈরি করছে।

ফেসবুকে লাইক দিন