ইসলামী ভাবধারার পোশাক বাংলাদেশের সংস্কৃতির পরিপন্থী: কুয়েট কর্তৃপক্ষ

ইমান২৪.কম: ইসলামী ভাবধারার পোশাককে বাংলাদেশের সংস্কৃতির পরিপন্থী উল্লেখ করে শিক্ষার্থীরা তাদের বিব্রতকর পরিস্থিতিতে ফেলছেন বলে দাবি করছেন কুয়েট কর্তৃপক্ষ।

বুধবার কুয়েটের রেজিস্ট্রার জি এম শহিদুল আলম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘ক্যাম্পাসে বিভিন্ন উৎসব উপলক্ষ্যে শিক্ষার্থীরা দলবদ্ধভাবে কিছু নির্দিষ্ট পোশাক পরিধান করে শোভা বা র‌্যালীতে অংশগ্রহণ করছে, যা বাংলাদেশের সংস্কৃতির পরিপন্থী।

এজন্য বিশ্ববিদ্যালয়কে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েতে হয়েছে। এসব ক্ষেত্রে পোশাক নির্বাচনের জন্য নির্দেশনা জারি করে বলা হয়েছে, ‘শিক্ষার্থীদের ছাত্র কল্যাণ দপ্তর, সংশ্লিষ্ট প্রভোস্ট বা বিভাগীয় প্রধানগণের নিকট হতে পোশাক সংক্রান্ত মতামত গ্রহণ করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ করা হল।’ প্রসঙ্গত, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগের ১৫ ব্যাচের ছাত্ররা নিজেদের শেষ ক্লাসে ইসলামী ভাবধারার পোশাক পরে আলোচনায় উঠে এসেছেন।

এমন একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। জানা গেছে, কুয়েটের কম্পিউটার প্রকৌশল বিভাগের ১৫ ব্যাচের ছাত্ররা ব্যতিক্রমি কিছু করার প্রচেষ্টা চালান।

এর অংশ হিসেবে সম্প্রতি ইসলামী ভাবধারার পোশাক (যা আরব দেশগুলোতে নিয়মিত পড়া হয়) পরে শেষ ক্লাসে উপস্থিত হন সবাই। আর মেয়েরা শাড়ী পরে হাজির হন ক্লাসে।

এমন ভিন্নধর্মী আয়োজনের কারণে অনেকে তাদের প্রশংসা করে বলেছেন, শেষ ক্লাসে স্মরণীয় কিছু করতে পেরেছেন তারা।

ফেসবুকে লাইক দিন