কামরাঙ্গীরচরে ক্রিকেট খেলা নিয়ে মারামারি: কিশোর গ্যাংয়ের সংঘর্ষে নিহত ১

ইমান২৪.কম: রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর ঝাউচরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে মো. অপু (১৭) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে। এই ঘটনায় আহত হয়েছে মো. সিহাব (১৭) ও মো. শামীমকে (১৬) স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঝাউচর সেভেনের মাঠের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

অপুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া তার বন্ধু মো. আল আমীন ও মো. শাহাদত হোসেন জানান, তাদের বাসা কামরাঙ্গীরচর ঝাউলাহাটি এলাকায়। শুক্রবার সকালে তাদের এলাকার ছোট ভাই শামীমকে মারধর করে ঝাউচরের সেভেনের মাঠ এলাকার কয়েকজন কিশোর।

শুক্রবার সন্ধ্যায় অপুসহ তারা বেশ কয়েকজন ওই মারধরের ঘটনা মীমাংসা করতে ঝাউচর সেভেনের খেলার মাঠে যান। সেখানে ওই এলাকার ইব্রাহীম সাঞ্জুসহ ৩০/৪০ জন লাঠি নিয়ে তাদের ওপর হামলা করে। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে কেউ একজন কাঠ দিয়ে অপুর মাথায় আঘাত করে।

এতে অপু মাটিতে অচেতন হয়ে পরে যায়। আর শামীম ও সিহাবকেও ছুরিকাঘাত করে তারা। তারা জানান, আহত অবস্থায় অপুকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সাড়ে ৭টায় তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আর শামীম ও সিহাবকে স্থানীয় লাইফ কেয়ার নামে একটি ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়া হয়।

তাদের পিঠসহ শরীরে আঘাত রয়েছে। তবে গুরুতর নয়। নিহত অপুর মামা মো. হৃদয় হোসেন জানান, কামরাঙ্গীরচর ঝাউলাহাটি চৌরাস্তায় এলাকায় মা পারুল বেগম ও দুই বোনের সঙ্গে থাকত অপু। তিন ভাইবোনের মধ্যে অপু ছিল দ্বিতীয়।

নিউমার্কেটে একটি কসমেটিকসের দোকানের কর্মচারী হিসেবে চাকরি করত। তার বাবা কবির হোসেন অনেক আগেই পারুল বেগমকে তালাক দেয়। ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মৃতদেহ মর্গে রাখা হয়েছে। তার শরীরে বাহ্যিক কোনো আঘাত নেই। শুধু মাথায় আঘাতের কারণে কান দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে।

এ ঘটনায় অপুর দুই বন্ধু শাহাদত ও আল আমিনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ বক্সে রাখা হয়েছে।

ফেসবুকে লাইক দিন