আমাকেও ফ্লয়েডের মতো হত্যা করতে চেয়েছিলো ইসরাইল: ফিলিস্তিনী বৃদ্ধ

ইমান২৪.কম: খাইরি হানাউন নামে ৬৪ বছর বয়সী একজন প্রবীণ ফিলিস্তিনি পশ্চিম তীরে ইহুদীবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইলের দখলদারিত্বের প্রতিবাদ করার সময় ইসরাইলী সেনাদের দ্বারা নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছেন।

ওই বৃদ্ধ তার উপর নির্যাতনের বর্ণনা দিতে গিয়ে বলেছেন, আমেরিকার পুলিশ যেভাবে ব্ল্যাক আমেরিকান জর্জ ফ্লয়েডকে হত্যা করেছিল ইসরাইলী সেনারাও আমাকে সেভাবে হত্যা করতে চেয়েছিলো।

তিনি বলেন, আমি নিজেকে মাটিতে পড়ে থাকতে দেখলাম এবং একজন ইসরাইলী সৈন্য আমার ঘাড়ে চেপে বসেছিল। আমি আমার সারা শরীর অবস অনুভব করছিলাম। তখন আমার একজন সাদা পুলিশের হাতে কালো আমেরিকান হত্যার ঘটনার কথা মনে পড়েছিলো।

তিনি আরো বলেন, আমার উপর নির্যাতন চালিয়ে ইসরাইলী বাহিনী একটি অনৈতিক কাজ করেছে। আমরা আমাদের জমি রক্ষা করতে একটি বন্দোবস্ত প্রকল্পের বিরোধিতা করেছি। আমরা কোন অস্ত্র বহন করিনি।

ইসরাইলী সেনাদের বোমা ও বুলেটের সামনে আমরা ফিলিস্তিনের পতাকা হাতে নিয়ে দাঁড়িয়েছি। প্রসঙ্গত, পশ্চিম তীর দখলের পর গত ১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার ইহুদীবাদী সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল ফিলিস্তিনীদের ভূমি বন্দোবস্ত করার জন্য আইন প্রয়োগ করে।

ওই বন্দোবস্তের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনীদের একটি র্যালীতে হামলা চালায় ইসরাইলী সৈন্যরা। এসময় খাইরি হানাউন নামে ৬৪ বছর বয়সী একজন প্রবীণ ফিলিস্তিনি ব্যক্তির উপর নির্যাতন চালায় ইসরাইলী বাহিনী।

ইসরাইলী বাহিনীর এক সদস্য ওই বৃদ্ধের ঘাড়ে হাঁটু দিয়ে সজোরে চাপ দেয় ও বসে থাকে। পরে ওই বৃদ্ধকে আটক করে নিয়ে যায় ইসরাইল। এ ঘটনার পরপরই ফিলিস্তিনী কর্মীরা মাটিতে পড়ে থাকা বৃদ্ধ হানাউনকে ফ্লয়েডের স্টাইলে নির্যাতনের ছবি বিভিন্ন মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয় এবং তার মুক্তি দাবি করে।

ফেসবুকে লাইক দিন