আমিরাত-ইসরায়েল শান্তি চুক্তিকে ‘ধন্যবাদ’ জানালো ওমান

ইমান২৪.কম: ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী গাভি আশকেনাজির সঙ্গে ফোনালাপ করেছেন ওমানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইউসুফ বিন আলাউই বিন আবদুল্লাহ।

এরপর তিনি ফিলিস্তিনের রাজনৈতিক দল ফাতাহ’র এক শীর্ষ নেতার সঙ্গেও ফোনে কথা বলেছেন। আল আরাবিয়ার বরাতে জানা যায়, মঙ্গলবার আশকেনাজির সঙ্গে ফোনালাপে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইসরায়েলের শান্তিচুক্তিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন ওমান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তার আশা, এর ফলে মধ্যপ্রাচ্যে দীর্ঘস্থায়ী শান্তি স্থাপিত হবে। সংঘাত ও সহিংসতা হ্রাস পাবে। পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনিদের সংকটও এর মাধ্যমে সমাধান হবে। এই ফোনালাপের পর ইউসুফ বিন আলাউই বিন আবদুল্লাহ ফিলিস্তিনের রাজনৈতিক দল ফাতাহ’র মহাসচিব জিব্রিল রাজোবের সঙ্গে কথা বলেন।

সেখানে তারা ওমান ও ফিলিস্তিনের সম্পর্ক ও ভ্রাতৃত্ব নিয়ে আলোচনা করেছেন। আল আরাবিয়া বলছে, এই চুক্তি ইরানের বিরুদ্ধে আমিরাত ও ইসরায়েলের আঞ্চলিক শক্তি বৃদ্ধি করেছে। উভয় পক্ষই মনে করে, গালফ অঞ্চলের মূল হুমকি ও অশান্তির কারণ ইরান।

অন্যদিকে ওমান বন্ধুসুলভ পররাষ্ট্রনীতিতে বিশ্বাসী। দেশটির সঙ্গে সবার ভালো সম্পর্ক। সে তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র, ইরানের নামও আছে। সেই বন্ধুসুলভ পররাষ্ট্রনীতির কারণেই তারা ইসরায়েলের সঙ্গে কথা বলেছে বলে দাবি করছে ওমান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ওমান এই দাবি করলেও ভিন্ন কথা বলছে ইসরায়েলের গোয়েন্দা মন্ত্রণালয়। দেশটির গোয়েন্দামন্ত্রী গত রোববার এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, আমিরাতকে অনুসরণ করে ওমান ও বাহরাইন এবার শান্তিচুক্তি করতে চাইছে ইসরায়েলের সঙ্গে। এ বিষয়ে তাদের সঙ্গে চলছে আলোচনা।

ফেসবুকে লাইক দিন