পরোয়ানা ছাড়াই নুরদের গ্রেফতার করতে পারবে পুলিশ: আদালত

ইমান২৪.কম: ধর্ষণ ও ধর্ষণের সহযোগিতার অভিযোগের মামলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুরসহ ছয়জন আসামিকে গ্রেপ্তারের নির্দেশনা চেয়ে আদালতে আবেদন করেছেন বাদিনী ভিকটিম।

আজ রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম মাহমুদা আক্তারের আদালতে বাদিনী এ আবেদন করেন। তবে মামলাটি অমলযোগ্য এবং জামিন অযোগ্য অপরাধের হওয়ায় আদালত গ্রেপ্তার সংক্রান্তে কোনো আদেশ না দিয়ে আবেদন নথিতে রেখেছেন।

এদিকে আদালত জানিয়েছে পরোয়ানা ছাড়াই নুরদের গ্রেফতার করতে পারবে পুলিশ। এ সম্পর্কে বাদী পক্ষের আইনজীবী সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর হেমায়েত উদ্দিন খান হিরন বলেন, ‘ভিপি নুরসহ ছয়জনকে গ্রেপ্তার চেয়ে আবেদন করেন বাদিনী।

শুনানির পর আদালত আদেশে বলেছেন, যেহেতু মামলাটি আমলযোগ্য ও জামিন অযোগ্য অপরাধের। পুলিশই আদালতের কোন আদেশ ছাড়াই যেকোনো সময় আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পারেন। তাই আবেদনটি রক্ষণীয় নয় মর্মে আদেশ দিয়ে আবেদনটি নথিভুক্ত রাখা হয়েছে।’

এর আগে ভিকটিম বাদী আবেদনে বলেন, ‘তার মামলায় আসামিরা প্রভাশালী। তারা গ্রেপ্তার না হওয়ায় তিনি চরম নিরপত্তাহীনতায় ভুগছছেন। এছাড়া আসামিরা গ্রেপ্তার না হলে মামলার তদন্তও প্রভাবিত হওয়ায় সম্ভবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে বাদী ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হইতে পারেন।’

মামলার অপর আসামিরা হলেন-বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নাজমুল হাসান সোহাগ (২৮), একই সংগঠনের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন (২৮), বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সাইফুল ইসলাম (২৮), বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি নাজমুল হুদা (২৫) এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আব্দুল্লাহিল বাকি (২৩)।

গত ২০ সেপ্টেম্বর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী লালবাগ থানায় বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুনকে প্রধান আসামি করে ছয় জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলাটি দায়ের করেন।

ফেসবুকে লাইক দিন