রাজশাহীতে গির্জায় আটকে রেখে কিশোরীকে ধর্ষণ: খ্রিষ্টান ধর্মগুরু গ্রেফতার

ইমান২৪.কম: রাজশাহীর ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে মেরী ভিয়ান্নী গির্জার ফাদারকে।

তিনি ওই স্কুলছাত্রীকে অপহরণ কোরে তিন দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করেন বলে মামলার অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়। প্রথমে বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসার চেষ্টা করা হয়।

পরে বিস্তারিত জানতে পেরে পুলিশ কিশোরীকে উদ্ধার করে। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

রাজশাহীর তানোরের মুন্ডুমালা মাহালীপাড়ার সাধুজন মেরী ভিয়ান্নী গির্জা। এই গির্জার ফাদার প্রদীপ গ্যাগরীর বিরুদ্ধে এক ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর কিশোরীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠে।

ভুক্তভোগীর পরিবারের জানায় গত ২৬শে সেপ্টেম্বর সকালে ঘাঁস কাটতে গিয়ে নিখোঁজ হন ওই কিশোরী। তাকে না পেয়ে পরদিন তার ভাই থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

এর দুদিন পর ২৮শে সেপ্টেম্বর সকালে জানা যায়, তানোরের ওই গির্জায় রয়েছে কিশোরীটি। পরে শালিস বসে গীর্জার ভেতরে। গ্রামের মোড়ল ও মুন্ডুমালা সরকারি হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক কার্মেল মার্ডি বৈঠকের পর ফাদার প্রদীপকে অপসারণ কোরে পাঠিয়ে দেন রাজশাহীতে।

আর কিশোরীকে রাখেন গীর্জার ভেতরে সিস্টারদের কাছে। এদিকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তানোর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও পুলিশ গীর্জায় গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করেন।

ফেসবুকে লাইক দিন