বিয়ের আসর থেকে কনেকে অপহরণচেষ্টা ছাত্রলীগ নেতার

ইমান২৪.কম: পিরোজপুরে বিয়ের আসর থেকে কনেকে (২০) অপহরণের চেষ্টার অভিযোগে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিকসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

শনিবার রাতে কনের পিতা পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন সদর থানায় এ অভিযোগ দায়ের করেন। কনে স্থানীয় সরকারী সোহরাওয়ার্দী কলেজের ইংরেজী বিভাগের মাষ্টার্সের শিক্ষার্থী।

থানার অফিসার ইন চার্জ মো. নুরুল ইসলাম বাদল ওই অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ ঘটনায় ওই কলেজ ছাত্রীর পিতা থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন। তদন্ত করে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকালে পৌর শহরের ৫নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেনের শিক্ষা অফিস সড়কের বাড়ীতে বসে তার কলেজ পড়ুয়া কন্যা (২২) এর বিয়ের আকদের আয়োজন করা হয়।

সে সময় সেখানে ইন্দুরকানী উপজেলার বরপক্ষ তাদের আত্মীয়-স্বজন নিয়ে উপস্থিত ছিলেন। এ সময় জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিকের নেতৃত্বে ২০/২৫ জনের একটি দল ওই কনের ঘরে ঢুকে বর পক্ষের সামনেই কনে কলেজ ছাত্রীকে অপহরণ করে নিতে টানাহেচরা করেন।

এসময় জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের সাথে থাকা পিস্তল বের করে উপস্থিতদের ভয় দেখানো হয়। কনে পক্ষের আত্মীয়-স্বজনরা বাধা দিলে ছাত্রলীগ নেতা তাদের হুমকী দিয়ে চলে যান।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা জানান, ওইদিন তার মেয়ের বিয়ের জন্য আকদ অনুষ্ঠান শুরুর আগেই অনিরুজ্জামান অনিক কিছু সন্ত্রাসী নিয়ে তাদের বাড়িতে ঢুকে অনুষ্ঠান থেকে তার মেয়েকে জোরপূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

এ সময় স্থানীয়দের বাধায় অপহরনে ব্যর্থ হয়। মেয়েকে ছাত্রলীগকর্মী ধুপপাশা এলাকার জনৈক আবুল কালামের ছেলে আব্দুল আলিম ছাড়া অন্য কারও সাথে বিয়ে দেয়া যাবে না বলে হুমকী দেয়।

এ ব্যাপারে জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক অনিরুজ্জামান অনিক তার বিরুদ্ধে আনিত কলেজছাত্রীকে অপহরণের চেষ্টার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ওই কলেজছাত্রীর সাথে ছাত্রলীগ নেতা আলিমের সাথে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। এ নিয়ে তাদের সাথে বিয়ের প্রস্তাব চলছে।

ফেসবুকে লাইক দিন