রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম নিয়ে উস্কানি দাতাদের দ্রুত গ্রেফতার করতে হবে: আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী

ইমান২৪.কম: আদালত কর্তৃক মীমাংসিত রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ইস্যুতে ‘লিগ্যাল নোটিশ’ পাঠিয়ে আবারো উস্কানি দিচ্ছে উল্লেখ করে এর তীব্র নিন্দা ও পতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীর আল্লামা শাহ আতাউল্লাহ হাফেজ্জী।

তিনি বলেন, ‘সংবিধানকে পরিপূর্ণ ধর্মনিরপেক্ষ করণের নামে আবারো অশোক কুমার সাহাসহ কতিপয় উগ্রহিন্দু ও নাস্তিক্যবাদী কুচক্রিমহল বাংলাদেশ সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেয়ার ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছে।

এ উগ্রসাম্প্রদায়িক গোষ্টি দেশের শান্ত পরিবেশকে অশান্ত করতে চায়। একটি সাংবিধানিক ও মীমাংসিত বিষয় নিয়ে যারা বারবার উস্কানি দিচ্ছে তাদেরকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

গুটি কয়েক উগ্রহিন্দু ও নাস্তিক্যবাদীর প্রস্তাবে সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলামকে বাদ দেওয়া হলে এদেশের ৯২ ভাগ মুসলিম জনতা গর্জে উঠবে এবং আন্দোলনের দাবানল সারা দেশে ছড়িয়ে পড়বে।

মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর মাদরাসায় বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের এক জরুরি বৈঠকে সভাপতির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। আল্লামা আতাউল্লাহ বলেন, উগ্রহিন্দু ও নাস্তিক্যবাদীরা সংবিধানে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম, সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহ ও বিসমিল্লাহ শব্দ থাকুক তাও সহ্য করতে পারছে না।

অথচ ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ৫৪ সালের নির্বাচন, ৬৬ সালের ৬ দফা, ৬৯ সালের ১১ দফা ও গণঅভ্যুত্থান, ৭০ সালের নির্বাচন এবং ৭১ এর স্বাধীনতার ঘোষণাপত্রে ধর্মনিরপেক্ষতার কথা কোথাও উল্লেখ নেই।

তাই ঈমান, ইসলাম ও দেশ রক্ষায় ইসলাম বিদ্বেষী উগ্রহিন্দু ও নাস্তিক্যবাদীদের চক্রান্তকে যেকোন মূল্যে প্রতিহত করতে হবে। সভায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, দলের মহাসচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ মিয়াযী, নায়েবে আমীর মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী, সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি সুলতান মহিউদ্দীন, মাওলানা সাজেদুর রহমান ফয়েজী, মাওলানা সাইফুল ইসলাম সুনামগঞ্জী, মাওলানা সানাউল্লাহ ও মুফতী আফম আকরাম হুসাইন প্রমুখ।

ফেসবুকে লাইক দিন