বিষপ্রয়োগে হত্যা করা হয়েছিলো মুরসির ছেলে আবদুল্লাহ মুরসিকে!

ইমান২৪.কম: রহস্যজনক ভাবে ইন্তেকাল করা মিসরের সাবেক প্রেসিডেন্ট শহীদ মোহাম্মদ মুরসির ছোট ছেলে আবদুল্লাহ মুরসিকে বিষপ্রয়োগে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

মুরসির আইনি পরামর্শক হিসেবে কর্মরত ব্রিটেনের একটি বিশেষজ্ঞ দল এ তথ্য জানিয়েছে। বিশেষজ্ঞ দলটি বলছে, আবদুল্লাহ মুরসিকে প্রাণঘাতী পদার্থ দিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত নির্ভরযোগ্য তথ্য ওই বিশেষজ্ঞ দলের কাছে রয়েছে বলে মিডল ইস্ট আইয়ের খবরে দাবি করা হয়েছে। ২০১৯ সালের ৪ সেপ্টেম্বর মিসরের রাজধানীর দক্ষিণাঞ্চলে গিজার একটি হাসপাতালে ২৫ বছর বয়সী ওই তরুণকে মৃত পাওয়া যায়।

এর আগে তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তখন কায়রোতে তার আইনজীবী আবদলে মাকসুদ বলেন, বন্ধুর সঙ্গে গাড়ি চালানো সময় আবদুল্লাহর হার্টঅ্যাটাক হয়েছে।

তার বন্ধু তখন গাড়ি থামিয়ে তাকে আল-ওয়াহা হাসপাতালে নিয়ে যান, কিন্তু চিকিৎসকেরা তার জ্ঞান ফেরাতে পারেননি। আবদুল্লাহর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে রোববার তার আইনি দল জানায়, এমন কিছু তথ্য হাতে মিলেছে, যাতে এই মৃত্যুর ঘটনায় নতুন কারণ পাওয়া গেছে।

তারা বলেন, যেসব তথ্য পাওয়া গেছে, তাতে বোঝা যাচ্ছে, শরীরে বিষাক্ত পদার্থ ঢোকানোর পর ২০ কিলোমিটার দূরের একটি হাসপাতালে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ইচ্ছাকৃতভাবেই তাকে কাছের হাসপাতালে নেয়া হয়নি। আইনি দলের প্রধান টবি ক্যাডম্যান বলেন, তার মৃত্যুকে ঘিরে এখনো অনেক রহস্য রয়ে গেছে।

এখনো বেশ কিছু প্রশ্নের জবাব পাওয়া যায়নি। আবদুল্লাহ মৃত্যুর ভয় নিয়ে দিন পার করছিলেন। ২০১৯ সালের জুনে আদালত কক্ষে প্রেসিডেন্ট মুরসির শহীদ হওয়ার পর আবদুল্লাহ অভিযোগ করে বলেছিলেন, তার বাবাকে হত্যা করা হয়েছে।

এজন্য সরকারি কর্মকর্তাদের তিনি দায়ী করেছিলেন।

ফেসবুকে লাইক দিন