আ.লীগ সরকারকে চায় সৌদি!

ইমান২৪.কম: ড. কামাল হোসেন ষড়যন্ত্রকারী ও দুর্নীতিবাজদের নিয়ে ঐক্য করেছেন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন- স্বার্থান্বেষী মহলের সমন্বয়ে গঠিত নতুন জোট রাজনীতির জন্য নয়। সোমবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে, গণভবনে সৌদি সফর পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন তিনি। এ সময়, নির্বাচনকালীন সরকার বা ছোট মন্ত্রিসভা গঠন করা হবে কিনা তা নিয়েও- নতুন চিন্তার কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। আওয়ামী লীগ সুষ্ঠু নির্বাচন চায় উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন- যথাসময়েই অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন।

কোনো পক্ষ তা বানচালের চেষ্টা করলে, জনগণই তা প্রতিহত করবে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী। সবশেষ, জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশন থেকে ফিরে চলতি মাসের ৩ অক্টোবর সংবাদ সম্মেলনে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তিন সপ্তাহ না পেরোতেই এবার সৌদি সফরের আদ্যোপান্ত জানাতে আবারও গণমাধ্যমকর্মীদের মুখোমুখি সরকারপ্রধান শেখ হাসিনা। লিখিত বক্তব্যের পর বিভিন্ন ইস্যুতে উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন প্রধানমন্ত্রী।

ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে গঠিত নতুন রাজনৈতিক জোটকে আবারও স্বাগত জানান তিনি। কিন্তু, সাফ জানিয়ে দেন এই জোট রাজনীতির জন্য নয় বরং স্বার্থান্বেষী মহলের যৌথতা। আওয়ামী লীগ অবাধ-সুষ্ঠু নির্বাচনের পক্ষে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন- যথাসময়ে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ষড়যন্ত্র করে কেউ মানুষের ওপর অত্যাচার করলে তারও জবাব দেয়া হবে বলে হুঁশিয়ার করেন তিনি। নির্বাচনকালীন ছোট মন্ত্রিসভা গঠন করলে,

মন্ত্রণালয়গুলোতে চলমান বিভিন্ন প্রকল্প ক্ষতিগ্রস্ত হবে কিনা- এমন আশঙ্কায় নির্বাচনকালীন সরকার প্রসঙ্গে নতুন ফর্মুলা দেন শেখ হাসিনা। সম্প্রতি, এক টেলিভিশন টক শো’তে নারী সাংবাদিককে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করা ব্যারিষ্টার মঈনুল হোসেনর তীব্র নিন্দা করেন প্রধানমন্ত্রী। দেশের উন্নয়ন-অগ্রযাত্রার ও দীর্ঘমেয়াদি স্থিতিশীলতা রক্ষায় সৌদি সরকার আগামীতে আওয়ামী লীগ সরকারের ধারাবাহিকতা দেখতে চায় বলেও সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের কাছে ক্ষমা চাইতে মাসুদা ভাট্টিকে লিগ্যাল নোটিশ

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেফতারে ড. কামালের উদ্বেগ, আইনি লড়াইয়ের ঘোষণা

ফেসবুকে লাইক দিন