আল্লাহর কী খেলা! ধন-সম্পদ-অস্ত্র কিছুই কাজে আসছে না” প্রধানমন্ত্রী

ইমান২৪.কম: মহামারি আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। প্রতিদিন মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে, মারা যাচ্ছে। অথচ মানুষ প্রাণপণ চেষ্টা করেও কিছু করতে পারছে না।

করোনার কারণে বিপর্যয়ের মধ্যে আছে বিশ্বের শক্তিধর রাষ্ট্রগুলোও। আজ তারাও অসহায়। তাদের ধন-সম্পদ ও অস্ত্রশস্ত্র কোনো কিছুই কাজে আসছে না।

এ বিষয়টির দিকে ইঙ্গিত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শক্তিশালী দেশগুলোকেও ব্যর্থ করে দিয়েছে করোনাভাইরাস। ‘আল্লাহ রাব্বুল আল-আমিনের কী খেলা! ধন-সম্পদ-অস্ত্র কিছুই কাজে আসছে না।’

আজ সোমবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে রংপুর বিভাগের ৮ জেলার প্রতিনিধিদের সঙ্গে মতবিনিময় শুরু করার আগে স্বাগত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, গোটা বিশ্ব এক অদৃশ্য শত্রুর মোকাবিলা করছে।

করোনাভাইরাসে বিশ্বের অর্থনীতি থমকে দাঁড়িয়েছে। বিশেষজ্ঞরা এটাকে অর্থনৈতিক মহামারি হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। বিশ্বের পাশাপাশি দেশের অর্থনীতি থমকে গেছে, এবং পরিস্থিতি মোকাবেলায় বিভিন্ন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছিলাম। এর সুফলও দেশবাসী পাচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎ একটা আঘাত আসলো। ভয়ংকর করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট সংকটে থমকে দাঁড়িয়েছে দেশের অর্থনীতি।

তিনি বলেন, অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে মানুষকে সুরক্ষিত রেখে জেলা পর্যায়ে কিছু কুটিরশিল্প ও ক্ষুদ্র শিল্পপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাসের এই দুর্যোগে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে এবং সকল স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

আজ রংপুর বিভাগের পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর, নীলফামারী, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, রংপুর ও গাইবান্ধা জেলার প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি, চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মী, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং সশস্ত্র বাহিনীর প্রতিনিধি, শিক্ষক ও মসজিদের ইমামসহ অন্যান্য প্রতিনিধির সঙ্গে মতবিনিমিয় করেন প্রধানমন্ত্রী।

ফেসবুকে লাইক দিন