আমেরিকার বহু গী’র্জাই এখন মসজিদে পরি’ণত হচ্ছে

ইমান২৪.কম: বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার আদলে মসজিদের শহরে পরিণত হচ্ছে আমেরিকার নিউ ইয়’র্কের বাফেলো। যেখানকার খ্রি’ষ্টান স’মপ্র’দায়ের অধি’কাংশ গী’র্জাই এখন মসজিদ। প্রতিদিনই এ সব মসজিদে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজে বেড়েই চলছে মুসল্লির সমাগম। প্রতিটি মুসলিম পরিবারই তাদের স্কুল পড়ুয়া ছেলেমেয়েদের নিয়ে মসজিদে নামাজ আদায়ে সামিল হচ্ছেন।

এছাড়া শুক্রবারে পরিবারের অধিকাংশ নারীরা পরিবারের ক’র্তার সঙ্গে পু’ত্র-ক’ন্যা’দেরকে নিয়ে যাচ্ছে এসব মসজিদে। প্রায় প’ঞ্চাশ হাজার অধিবাসী সম্ব’লিত বাফেলোর মেয়র এবং সিটির পু’লিশ ক’মিশনার নিউ’জিল্যা’ন্ড ঘটনার পর থেকে শুক্রবারে প্র’ত্যে’কটা মসজিদে রে’গুলার পুলিশের পাশাপাশি গো’য়েন্দা পুলি’শের নজর’দা’রীও বৃ’দ্ধি করেছে। যাতে মুস’ল্লিদের উপর অনা কা’ঙ্ক্ষি’ত কোন ঘটনা না ঘটে।

জানা গেছে, ২ হাজার ৫২৫ বর্গ কিলোমিটারের এ শহরটিতে রয়েছে বর্তমানে ১৭টি জামে মসজিদ, ৪টি ইবাদত খা’নাসহ বৃহৎ পরিসরে ৪টি উচ্চ শি’ক্ষার মাদ্রাসা। এ ছাড়াও কোরআনে হা’ফেজ তৈরির লক্ষ্যে গড়ে উঠেছে বেশ কয়েকটি হেফজ খানা। কিন্তু চম’ক’প্রদ খবরটি হচ্ছে- ত’ৎ’কালীন বাফেলোর পুরো জেল খানাটিই এখন যুক্ত’রাষ্ট্রের সর্ব বৃ’ৎ আবাসিক/ অনাবাসিক মহিলা মাদ্রাসায় পরিণত হয়েছে।

যেখানে ইসলামি শিক্ষা কার্যক্রমের পাশাপাশি দেশটির শিক্ষা কা’র্যক্র’মের অ’ন্তর্ভু’ক্ত পু’স্তকও পড়ানো হয়। মাদ্রসাটির অধিকাংশ শিক্ষক ইসলামি শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে উচ্চতর ডিগ্রী অর্জন করেছেন। এদিকে, পুরো বা’ফেলো’ জুড়েই বসবাস করছে এশিয়ার অধি’কাংশ মুসলিম দেশের মানুষ। তাদের মধ্যে ইয়ে’মেন, বাংলাদেশ, বা’র্মা ও পাকিস্তানের মুসলিমদে’র সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি।

এ ছাড়া সৌদি আরব, আরব আমিরাত ও ভারতের মুসলিম জন’সং’খ্যাও রয়েছে। শহরটিতে বর্তমানে যে সব মসজিদ রয়েছে তার অধি’কাংশই পূর্বব’র্তীতে গী’জা ছিল। এ সব গী’র্জা খ্রি’ষ্টান সম্প্র’দায়ের মানু’ষের উ’পস্থিতি কমে যাওয়ায় এবং দেখ ভা’লের অভাবে পরি’ত্য’ক্ত অবস্থায় পড়ে থাকে বছরের পর বছর। যাতে ক্ষ’তির মুখে প’তিত হচ্ছিল ভবনগুলো। পাশাপাশি বাফেলো সিটি হারাচ্ছিল মোটা অংকের রা’জস্ব।

অন্যদিকে, বাফেলোতে মুসলিম জন’গো’ষ্টীর সং’খ্যা দিন দিন বৃ’দ্ধি পাওয়া এবং তাদের চা’হিদা থাকায় সিটি কর্তৃপক্ষ নামেমাত্র থাকা এ সব গী’র্জা লিজ প্র’দান করে মসজিদের জন্য। স’ম্প্রতি দেলে’বান ও বে’লী রোড়ের ক’র্ণারে স’ববৃহৎ গী’র্জাটি যখন মসজিদের জন্য সি’টির কাছ থেকে লিজ নেয়া হলো, তখন বি’ভিন্ন ’মিডিয়া বিশেষ করে (ফ্র’ক নিউজ, এ’বিসি নিউজ) খ্রিষ্টা’ন সম্প্রদায়ের লোকদের এক’টি সাক্ষাৎ’কার নিয়ে তা প্র’কাশ করে।

যা’তে তাদের অধি’কাং’শের মতামত ছিল এরকম যে, ‘আমরা আগে রোববারে প্রে করতাম, সেখানে মুসলিম ফ্রে’ন্ডরা শুক্র’বারে প্রে করবে, পা’র্থ’ক্য শুধু এটাই। আমরা গ’ড’কে ডাকতাম আর ওরা আল্লাহকে ডাকবে। এতে সমস্যা কোথায়? শহরটির যে সব গী’র্জা এখন মসজিদে পরিণত হয়েছে তারমধ্যে মস’জিদ-এ-জাকারিয়া, মসজিদ আল তাকওয়া, মসজিদে জুমা, মসজিদে নো’মান, মার্কাস মসজিদ, মসজিদ আল ইয়ামা,

মসজিদ জামা, মসজিদ আল নূর, মসজিদ আল গু’দাম, মসজিদ এট জ্যা’ফরীয়া, বায়তুল মামুর জামে মসজিদ, মসজিদ বিলাল, মসজিদ দারুস সালাম, মসজিদ-ই-মাহদি, মসজিদ তাওহীদ, মসজিদ মুকাররাম জামে মসজিদ, সে’ন্ট্রাল পার্ক জামে মসজিদ উল্লেখযোগ্য।

ফেসবুকে লাইক দিন