আমি প্রতি মূহূর্তে সাংবাদিক বানাতে পারি : যুবলীগ নেতা পাভেল

ইমান২৪.কম: বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও একাদশ জাতীয় সংসদ নৌকার মননোয়ন প্রতাশী আবু আহমেদ নাসিম পাভেল বলেছেন, আমি চাইলে প্রতি মূহূর্তে সাংবাদিক বানাইতে পারি।

তিনি আআররও ববলেন, সাভার-আশুলিয়ার এমপি হই আর না হই, তিন মাসের মধ্যে আমার কর্মীদের ৮টা ডান্ডা (টিভি চ্যানেলের বুম) এনে দেবো।

গতকাল ১৪ সেপ্টেম্বর শুক্রবার ঢাকার আশুলিয়া প্রেসক্লাবে গিয়ে সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে হঠাৎ করেই ক্ষুব্ধ হয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

যুবলীগের এই নেতার এমন বক্তব্যের একটি ভিডিও ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। ৪০ সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে তাকে খুব বেশি উত্তেজিত দেখা যায়।

ভিডিওটিতে যুবলীগ নেতা পাভেলকে উত্তেজিত হয়ে বলতে দেখা যায়, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একবার হয়ে দেখাও। এমপি হই আর না হই আর সাংবাদিক প্রতি মুহূর্তেই তৈরী করতে পারি।।

সাংবাদিক তৈরীর হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি আরো বলেন, আগামী তিন মাসে কমপক্ষে ৮টা ডান্ডা (টিভি চ্যানেলের বুম) ৮টা কর্মীরে দিব। আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতিকে সাক্ষী রেখে বলছি, কতবার তোমার প্রেসক্লাবে আসতে চেয়েছি আমি? বহুবার বলছি আমি সাভার আশুলিয়া থেকে ইলেকশন করতে চাই।

ঘটনার বিষয়ে আশুলিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মোজাফফর হোসেন জয় বলেন, যুবলীগ নেতা পাভেল কয়েকবার আমাদের প্রেসক্লাবের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে আসতে চেয়েছেন।

উনাকে আমরা বলেছি গঠনতন্ত্র অনুযায়ী আমাদের এখানে প্রেসক্লাবের প্রধান উপদেষ্টা স্থানীয় এমপি। তাই প্রেসক্লাবের কোনো প্রোগ্রামে তাকে প্রধান অতিথি হিসেবে আনা সম্ভব না। আমরা তাকে প্রধান অতিথি না করার ক্ষোভ তার দীর্ঘদিনের।

তিনি বলেন, কয়েকমাস আগে তিনি একবার শো ডাউন করেছিলেন। সেই নিউজটা আমরা কাভার করতে পারিনি। এ বিষয় নিয়ে তার রাগ ছিল।

গতকাল শুক্রবার তিনি আবার এলাকায় ঢাকা-১৯ আসনে নৌকার একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে প্রচারণা করেন। পরে তিনি আমাদের প্রেসক্লাবের সামনে এসে দাঁড়ান। আমরা তাকে প্রেসক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের কক্ষে নিয়ে গিয়ে বসতে দিই। এরপরই তিনি উত্তেজিত হয়ে এইসব কথা বলেন।

আরও পড়ুনঃ পাঁচ দাবি, নয় লক্ষ্য নিয়ে ‘বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য’ ঘোষণা

বিএনপিকে আন্দোলন করার সুযোগ দিতে পুলিশ কমিশনারকে অনুরোধ করবেন প্রধানমন্ত্রী!

ফেসবুকে লাইক দিন