আফগানিস্তান থেকে সেনা সরানো হবে না: বাইডেন প্রশাসন

ইমান২৪.কম: তালেবানের সাথে চুক্তি মোতাবেক কথা ছিল শিগগিরই আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করবে আমেরিকা কিন্ত্র এখন তারা বলছে অন্য কথা। মার্কিন সেনা সদরদফতর পেন্টাগন বলেছে, বাইডেন প্রশাসন আফগানিস্তান থেকে আগামী মে মাসের মধ্যে সমস্ত সেনা প্রত্যাহার করবে না।

গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে আফগান তালেবানের সাথে আমেরিকা একটি চুক্তি সই করে যার আওতায় আফগানিস্তান থেকে ১২ হাজার মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করার কথা। এর বিনিময়ে তালেবান যোদ্ধারা মার্কিন সেনাদের ওপর হামলা বন্ধ করবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।

চুক্তি অনুযায়ী ২০২১ সালের মে মাসের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সমস্ত সেনা প্রত্যাহার করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন। কিন্তু পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি দাবি করেন, তালেবান তাদের প্রতিশ্রুতি রক্ষা করছে না এবং যতক্ষণ পর্যন্ত তারা প্রতিশ্রুতি রক্ষা না করবে ততক্ষণ পর্যন্ত চুক্তি অনুযায়ী সেনা প্রত্যাহার করা কঠিন ব্যাপার হবে।

অপরদিকে তালেবান বলেছে, মার্কিন সেনাদের দেশ ছাড়তে হবে, তা না হলে তাদের মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। এছাড়া, তালেবান দোহা চুক্তি মেনে চলছে না বলে আমেরিকা যে অভিযোগ তুলেছে তাও নাকচ করে দিয়েছে তালেবান।

শুক্রবার (২৯ জানুয়ারি) এট টুইটার পোস্টে মার্কিন সেনা সদরদপ্তর পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবির এক বক্তব্যের জবাবে তালেবানের মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ এসব কথা বলেন।

জন কিরবি দাবি করেন, তালেবান দোহা চুক্তির প্রতি সম্মান দেখাচ্ছে না এবং তারা যতক্ষণ পর্যন্ত চুক্তির প্রতি প্রতিশ্রুতিবদ্ধ না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করা হবে না।

গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে কাতারের রাজধানী দোহায় তালেবান ও আমেরিকার মধ্যে একটি চুক্তি হয় যাতে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দেয় আমেরিকা। অন্যদিকে, তালেবান মার্কিন সেনাদের ওপর হামলা বন্ধ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।

এ প্রসঙ্গে জবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, চুক্তির প্রতি তালিবান সম্মান দেখাচ্ছে না বলে পেন্টাগন যে দাবি করছে তা মিথ্যা।

ফেসবুকে লাইক দিন