আগুন নেভাতে বিমান বাহিনীর দুটি হেলিকপ্টার দিয়ে উপর থেকে পানি ছেটানো হচ্ছে

ইমান২৪.কম: রাজধানীর চকবাজার এলাকায় কেমিক্যাল গোডাউনে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে ফায়ার সার্ভিস। তবে বৃহস্পতিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৮টা পর্যন্ত আগুন পুরোপুরি নেভানো সম্ভব হয়নি। আগুন নেভাতে ঘটনাস্থলে ভোর থেকে বিমান বাহিনীর দুটি হেলিকপ্টার দিয়ে উপর থেকে পানি ছেটানো হচ্ছে। বিশেষ করে যেসব বাড়ি ও দোকান পুড়ে গেছে সেগুলোর ছাদে পানি দেয়া হচ্ছে। যাতে করে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা তাদের উদ্ধার তৎপরতা চালাতে পারেন।

এয়ার কমোডর মো. জাহিদ হোসেন বলেন, ‘বিমান বাহিনীর দুটি হেলিকপ্টার এনে আগুন নেভানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। তেজগাঁও বিমানবন্দর থেকে ৩টা ৪৮ মিনিটে পানি নিয়ে হেলিকপ্টার দুটি ঘটনাস্থলের দিকে রওনা দেয়। এরপর আকাশ থেকে পানি ছেটানো হয়।’

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক (অপারেশন ও মেইনটেন্যান্স) এ কে এম শাকিল নেওয়াজ ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের বলেন, আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা গেলেও ভেতরে এখনও জ্বলছে। রাসায়নিকসহ বিভিন্ন দাহ্য পদার্থ থাকায় আগুন পুরো নেভাতে অনেক সময় লাগবে।

বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর চকবাজার এলাকার নন্দকুমার দত্ত সড়কের চুড়িহাট্টা শাহী মসজিদের পেছনের একটি ভবন থেকে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৩৭ ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। রাত সাড়ে তিনটার দিকে আগুনের ভয়াবহতা কিছুটা কমলেও আবারও তা বেড়ে যায়।

এদিকে, সর্বশেষ পাওয়া খবরে বৃহস্পতিবার সাকাল ৮টায় জানা গেছে এখন পর্যন্ত ৬৯টি মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে আনা হয়েছে। তবে এ সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা। ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারাও নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন। পুড়ে যাওয়া লাশগুলো এখনো শনাক্ত করা যায়নি।

আরও পড়ুন: ভারতকে নিঃশর্ত-সীমাহীন সহায়তা করবে ইসরায়েল

হামলার মহড়া দিতে গিয়ে ভারতের দুই বিমান ধংস

ফেসবুকে লাইক দিন